ঢাকা রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

স্বাস্থ্য

জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি এবং হৃদরোগ

ডাঃ মোঃ ফজলুল কবির পাভেল | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:১০ এএম

মেয়েদের মাসিক ৫০ বছরের মধ্যে স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে যায়। কারো কারো ক্ষেত্রে সময়টা কম বেশি হতে পারে। মাসিক বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত মেয়েদের হৃদরোগের আশঙ্কা কম। এ সময়ে প্রধানত দু’টি কারণে মেয়েদের হৃদরোগ কম হয়। এর মধ্যে একটি হচ্ছে তাদের সেক্স হরমোন। এই হরমোনের কারণে হৃদরোগ কম হয়। আরেকটি কারণ মেয়েদের রক্তে এইচডিএল বা ভালো কোলেস্টেরল বেশি থাকে। এই ভাল কোলেস্টেরল রক্তনালীতে বøক তৈরি হতে দেয়না। কিন্তু মাসিক বন্ধ হবার পর থেকে ইসকেমিক হার্ট ডিজিজের বা করোনারি হৃদরোগের আশঙ্কা বাড়তে থাকে।

যেসব মেয়ে দীর্ঘ দিন ধরে জন্মনিয়ন্ত্রণের বড়ি খেয়ে যাচ্ছেন তাদের হৃদরোগ বেশি হয়। কিন্তু এর সাথে হরমোনের মাত্রার সম্পর্ক আছে। কম মাত্রায় ইস্ট্রোজেন হরমোন হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। দেখা গেছে মাসিক বন্ধ হবার পরে যেসব মহিলা ইস্ট্রোজেন হরমোন খান তাদের মধ্যে করোনারি হার্ট ডিজিজের হার কম। কম মাত্রায় ইস্ট্রোজেন হরমোন শরীরে এইচডিএল কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়ায় তাই হৃদরোগ কম হয়।

বর্তমানে প্রায় সবখানে কম মাত্রার জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি পাওয়া যায়। চিকিৎসকের পরামর্শে কম মাত্রার বড়ি গ্রহণ করা উচিত। তাতে হৃদরোগ অনেক কমানো সম্ভব।

 

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন