ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সবার দৃষ্টি গণভবনে

আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা আজ

ইয়াছিন রানা | প্রকাশের সময় : ৩ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০৫ এএম

পূণাঙ্গ কমিটির জন্য দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করছেন আওয়ামী লীগের দুই ঢাকা মহানগর, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগ, মৎসজীবি লীগ, ২১টি জেলা কমিটির প্রদপ্রত্যাশীরা। আজ পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন হতে পারে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহি কমিটির বৈঠকে। তাই সকাল ১০টায় গণভবনের এ বৈঠকের দিকে সকলের দৃষ্টি আজ। দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কি সিদ্ধান্ত ও নির্দেশনা দেবেন সেদিকে তাকিয়ে আছে সবাই। এছাড়া প্রতারক সাহেদকান্ড, পাপিয়াকান্ডসহ অনুপ্রবেশ ইস্যুতে বিশেষ দিক-নির্দেশনা আসবে বৈঠক থেকে।

আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক আজ সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত হবে। এতে দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করবেন। কোভিড-১৯ এর কারণে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিতসংখ্যক সদস্যের উপস্থিতিতে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ৮১ সদস্য কার্যনির্বাহী কমিটির মধ্যে বর্তমানে আছেন ৭৫ জন। বিভিন্ন পর্যায়ের ৩২ জন নেতা বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন।

দলটির নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বৈঠকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগ, ২১ টি জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি, বিভাগীয় উপকমিটির বিষয়ে আলোচনা করে তা অনুমোদন দেয়া হবে। এছাড়া শূন্য হওয়া সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনের প্রস্তুতি, সহযোগী সংগঠন যেমন মহিলা লীগ, যুব মহিলা লীগ, মহিলা শ্রমিক লীগের সম্মেলন, প্রেসিডিয়াম সদস্যদের সমন্বয়ে প্রস্তাবিত বিভাগভিত্তিক সাংগঠনিক টিম চূড়ান্তসহ সাংগঠনিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। পাশাপাশি আগামী দিনের সাংগঠনিক কর্মপরিকল্পনা নিয়েও কথা হবে। এছাড়া করোনাভাইরাস পরিস্থিতিসহ ঢাকা-১৮ আসনে মনোনয়নের দাবিতে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তারের অবস্থান, ছাত্রলীগের ধর্ষণকান্ড, প্রতারক সাহেদকান্ড, পাপিয়াকান্ড ও সমসাময়িক সামাজিক ও রাজনৈতিক বিষয় আলোচনায় প্রাধান্য পাবে।

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ইনকিলাবকে বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি এবং সেখানে আমরা কি দায়িত্ব পালন করেছি, সামনে কি করতে হবে, সাংগঠনিক কাজগুলো গতিশীল করতে করণীয় বিষয়গুলো থাকবে। এছাড়া অঙ্গসংগঠনের কমিটি, উপ-কমিটি, অনুপ্রবেশ ইস্যুতে আলোচনা হবে।

আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান ইনকিলাবকে বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে ৭৫ জন সদস্যের মধ্যে ৩২জন কার্যনির্বাহি কমিটির বৈঠকে থাকতে বলা হয়েছে।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহি সদস্য অ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবির কাউছার ইনকিলাবকে বলেন, সম্মেলন হওয়া ৩১টি জেলার মধ্যে ইতোমধ্যে ২১টির খসড়া কমিটি কেন্দ্রে জমা পড়েছে। প্রস্তাবিত এসব কমিটিগুলোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হতে পারে। এছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণসহ সম্মেলন হওয়া আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ এবং শ্রমিক লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে আলোচনা হবে। বিভাগীয় উপকমিটির খসড়া আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দফতরে জমা পড়েছে। ৩০ থেকে ৩৫ সদস্যবিশিষ্ট এই কমিটিগুলো চূড়ান্ত করার বিষয়টি আলোচনায় আসতে পারে। তবে কয়েকটি উপকমিটির সদস্য সংখ্যা বেশি থাকবে।

আওয়ামী লীগের একজন সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জানান, কমিটি অনুমোদনের পর এক সাপ্তাহের মধ্যে তা প্রেস রিলিস আকারে প্রকাশ করা হবে। তবে যেসব কমিটি নিয়ে সমস্যা থাকবে তা পুনরায় যাচাই বাছাই করে পরে প্রকাশ করা হবে।

দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন ইনকিলাবকে বলেন, অনুপ্রবেশকারী, অপকর্মকারীদের ব্যাপারে কঠোরতা অবলম্বন করা হচ্ছে। উপ-কমিটিতে যদি কোন অনুপ্রবেশকারী থাকে তাহলে স্ব-স্ব সম্পাদক তার দায়ভার নেবেন। জেলা কমিটির ক্ষেত্রেও যাচাই বাছাই করা হচ্ছে। আজকের কার্যনির্বাহি কমিটির বৈঠকে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীদের ব্যাপারে নীতিনির্ধারণী এবং নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, যেসব এমপি ও নেতারা স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান করবেন ইতোমধ্যে তাদের ছাড় না দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এ দিকে বৈঠকে শূন্য হওয়া আসনগুলোর উপনির্বাচন এবং পৌরসভাসহ আগামী দিনের স্থানীয় সরকার নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েও আলোচনা হবে। এমপিরা যেন নৌকার প্রার্থী বিপক্ষে কাজ না করেন; দলীয় কোন্দলে যেন প্রার্থীর জয় নিশ্চিতে সমস্যা না হয় এসব বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হবে।

সম্প্রতি ঘটে যাওয়া পাপিয়াকান্ড, সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রবাসে এক নববধূকে ছাত্রলীগ নেতাদের ধর্ষণ, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সবুজ আল সাহবার ধর্ষণ, করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী ও চিকিৎসাসেবা প্রতারণা নিয়ে বিভিন্ন দুর্নীতি-অনিয়মে জড়িত থাকা, দুষ্কৃতিকারীদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে দলের এক শ্রেণির নেতা, এমপি মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর আশ্রয় দেয়ার বিষয়ে আলোচনা হবে।

অপকর্মের কারণে ফরিদপুর, কুষ্টিয়া, ময়মনসিংহসহ কয়েকটি স্থানে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃত্ব পর্যায়ের কয়েকজনকে বহিষ্কার ও কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে। কোন কোন জেলায় এসব সমস্যা রয়েছে তা খুঁজে বের করতেও নির্দেশনা প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বলেন, আওয়ামী লীগে সম্পৃক্ত থেকে বা দলে অনুপ্রবেশ করে নানাভাবে যারা অপকর্ম করছেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। তারপরও অনেকেই দমছেন না। আসলে দল ক্ষমতায় আছে অনেক দিন, এ কারণে কেউ কেউ বেপরোয়া হয়ে উঠে নানা অপকর্ম করছেন। এসব বন্ধ করতে আরও কী পদক্ষেপ নেওয়া যায় তা কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় আলোচনা হতে পারে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Maynul Hassan ৩ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৪৮ এএম says : 0
রাজনীতি মানে ভাঁওতাবাজি, রাজনীতি যাঁরা পদ নিয়ে করতে জায় তাঁরা ১০০% মধ্যে ৯২% লোক সকল ধরনের অপরাধ করার জন্য রাজনীতিতে নাম লেখাই সে যে দলেরি হোক না কেন। আসা করি পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ভালো কিছু দিক নির্দেশনা নেতা কর্মী দের মাঝে বলিবেন। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।
Total Reply(0)
Md Ruman ৩ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৪৮ এএম says : 0
অনুপ্রবেশকারী নব্য আওয়ামী লীগের হাত থেকে আওয়ামী লীগকে কি ভাবে রক্ষা করা যায় এবং এদের আশ্রয়,প্রশায় দাতা দের বিরুদ্ধে ব্যবস্হা গ্রহন করা হোক। প্রকৃত আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের দূর্দিনের নেতা কর্মিরা দল থেকে নিজেরকে সরিয়ে নিচ্ছে।আর মুক্তিযোদ্ধের বিপক্ষের শক্তির লোকজন জামায়াত - বি,এন,পির লোকজন আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিচ্ছে।
Total Reply(0)
Uddin Mohammed Shahab ৩ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৪৯ এএম says : 0
দেশের বিরাজমান পরিস্থিতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিশ্চয়ই অবলোকন করছেন দীর্ঘ দিন সরকার প্রধানের দায়িত্ব নিয়ে,দেশের আশাতীত অপ্রত্যাশিত উন্নয়ন করার পরেও, বহিঃবিশ্বে ব্যাপক সুনাম এবং কূটনৈতিক সম্পর্কের অসামান্য সাফল্য সত্বেও, আভ্যন্তরীন লুটপাটের হরিলুট খেলা গোটাজাতি স্তম্ভিত, আওয়ামী লীগ, যুব লীগ,ছাত্র লীগের বেপরোয়া নীতি, মন্ত্রী , এমপিদের উদাসীনতা গোটাদেশ অগ্নিগর্ভে পরিনত হচ্ছে,এমতাবস্থায় সরকার প্রধানের একটা বিবৃতি জনগন আশা করছে। জয় বাংলা।
Total Reply(0)
Sharif Bijoy ৩ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৪৯ এএম says : 0
জয় হোক দেশ রত্নের সকল পদক্ষেপের.... জয়তু জননেত্রী!
Total Reply(0)
Md N S Tonmoy ৩ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৪৯ এএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপনি বাংলাদেশে জন্য যে অবদান রেখেছেন তা বাংলার মানুষের কলিজা আপনি আপনার দক্ষতা অর্জন বাংলার মানুষ কখনো ভুলতে পারবে না জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু
Total Reply(0)
Md Nazim Gazi ৩ অক্টোবর, ২০২০, ৪:৫০ এএম says : 0
জেলা উপজেলা ও তৃর্নমুল আওয়ামীলীগে ভিড়েছে জামাত বি এন পি আর এই কারন সম্মান হারাছে তূর্নমুলে আওয়ামীলীগের প্রকৃত ত্যাগী নেতা কর্মীরা আর এর জন্য দায়ী জেলা উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কিছু স্বার্থ লোভী অর্থ লোভী দূনীতিবাজ নেতারা এই ধরনের নেতাদের খুজে বের করে শাস্তি না দিলে আগামীতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কে অনেক বড় খেষারত দিতে হবে.বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর সভাপতি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার আকুল আবেদন আওয়ামীলীগে থেকে যে সকল নেতা জামাত বি এন পি কে আশ্রয় প্রশ্রয় দিচ্ছে সেই সব দূনীতিবাজ নেতা দের শাস্তি আওতায় আনুন আর জামাত বি এন পি হাত থেকে..জাতি পিতার হাতে গড়া সংগঠন আপনার আমার দেশবাসীর প্রানের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কে বাঁচান
Total Reply(0)
মিনহাজ ৩ অক্টোবর, ২০২০, ১১:০৫ এএম says : 0
দুর্নীতিবাজদেরকে দলের কমিটিতে রাখা যাবে না।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন