ঢাকা সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ভ্যাকসিন সংগ্রহ নিয়ে সরকারের তথ্য অস্পষ্ট-বিভ্রান্তিমূলক: বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন সংগ্রহ নিয়ে সরকার যে তথ্য দিচ্ছে তা অস্পষ্ট ও বিভ্রান্তিমূলক বলে মনে করে বিএনপি। দলটির স্থায়ী কমিটি সভায় বলা হয়, কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি করেছে দুটো ঔষধ প্রস্তুতকারী সংস্থা- ফাইজার ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মর্ডনা। এছাড়াও রাশিয়া এবং চীন ইতোমধ্যেই তাদের নির্মিত ভ্যাকসিন ব্যবহার করতে শুরু করেছে। ভ্যাকসিন সংগ্রহের বিষয়ে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এখনও পর্যন্ত কোন স্বচ্ছ ধারনা জনগণের সামনে তুলে পারেনি। গণমাধ্যমে ভ্যাকসিন সংগ্রহের বিষয়ে সরকারি ভাষ্য অনুযায়ী যে সকল তথ্য প্রকাশিত হচ্ছে তা অত্যন্ত অস্পষ্ট এবং বিভ্রান্তিমূলক। গতকাল রোববার বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে একথা বলা হয়।

শনিবার বিকেলে গুলশানে বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির সভায় উপস্থিত ছিলেন- ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েম্বর চন্দ্র রায়, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।
সভায় রাজধানীতে গণপরিবহনের অগ্নিসংযোগের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার, রিমান্ড এবং গুমের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর দ্বারা তুলে নিয়ে যাওয়া কয়েকজন নেতাকে নির্যাতনের মাধ্যমে জোর করে জবানবন্দী দেওয়া এবং সিসি টিভি ফুটেজ-এর বরাত দিয়ে তাদের গ্রেফতার দেখানোর ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে। এটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তৈরি করা মিথ্যা প্রচারনার মাধ্যমে বিএনপিকে হেয় প্রতিপন্ন করা এবং নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার, নির্যাতন, দমন-নিপীড়ণ করে তাদের মনোবল ভেঙ্গে দেওয়ার অপ-কৌশল বলে মনে করে বিএনপি
দলটির পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়, বিএনপি কোন রকম সন্ত্রাসে বিশ্বাস করে না। এটা সরকারের অপকৌশল, নিজেদের এজেন্টদের দ্বারা এইসব সন্ত্রাসী কার্যকলাপ ঘটিয়ে বিএনপিকে দোষারোপ করা। যা অতীতে তারা করেছে। স্থায়ী কমিটির সদস্যরা অবিলম্বে গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীর মুক্তি ও সকল মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানায়।
তারা বলেন, করোনা ভ্যাকসিন সংগ্রহ ও বন্টনের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অবিলম্বে যথাযথ পরিকল্পনা গ্রহণ করে জনগণকে অবহিত করা অত্যন্ত জরুরি। কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রাপ্তি জনগণের অধিকার। ইতোপূর্বে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিনামূল্যে ভ্যাকসিন সরবরাহের দাবি জানিয়েছিলেন। সভা মনে করে ভ্যাকসিন সংগ্রহ ও বন্টন নিয়ে কোনও রকম দুর্নীতি না করে স্বচ্ছ নজরদারী ও জবাবাদিহিতার আওতায় নিয়ে এসে মানবিক কারণে জনগণের কাছে বিনামূল্যে প্রদান ও সহজলভ্য করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ভ্যাকসিন সংগ্রহ এবং সংরক্ষণের জন্য যথাযথ তাপ নিয়ন্ত্রিত সংরক্ষণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি। অন্যথায় সংগৃহীত হলে ও তা কার্যকারিতা হারাবে। #

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন