ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮, ০৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মুক্তি পেল অপহৃত ২৭৯ শিক্ষার্থী

নাইজেরিয়ায় স্কুলে হিজাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ মার্চ, ২০২১, ১২:০০ এএম

নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলের একটি বোর্ডিং স্কুল থেকে অপহৃত ২৭৯ ছাত্রীর সবাইকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। তারা এখন সরকারের আশ্রয়ে রয়েছে। মঙ্গলবার স্থানীয় গভর্নর এ কথা জানিয়েছেন। জামফারা রাজ্যের গভর্নর ড. বেলো মাতাওয়ালে এএফপি’র একজন সাংবাদিককে বলেন, আমি আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি যে সব ছাত্রী এখন মুক্ত। তারা সবাই সরকারি ভবনে এসে পৌঁছেছে। সবাই ভালো আছে। এর আগে কর্তৃপক্ষ বলেছিল, প্রত্যন্ত জাঙ্গিবি গ্রামের একটি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় থেকে শুক্রবার শত শত বন্দুকধারী এসে ৩১৭ জন শিক্ষার্থীকে অপহরণ করে। কিন্তু গভর্নর জানান, অপহৃত ছাত্রীর সংখ্যা ২৭৯ জন। সরকারি কর্মকর্তারা অপহরণকারীদের সাথে আলোচনা করে এসব ছাত্রীর মুক্তির ব্যবস্থা করে। উল্লেখ্য, গত তিন মাসেরও কম সময়ের মধ্যে নাইজেরিয়ায় গণহারে শিক্ষার্থীর অপহরণের ঘটনা ঘটে। এর ফলে সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ তীব্র আকার ধারণ করে। অপরদিকে, অবশেষে নাইজেরিয়ায় স্কুলে হিজাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে দেশটির সরকার। নাইজেরিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় কাভারা প্রদেশের গভর্নর জানান, স্কুলগুলোতে ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর গুরুত্বারোপ করে সব ধর্মকে স্বাধীনতা ভোগ করে শান্তিপ‚র্ণভাবে বসবাস করার জন্য বলা হচ্ছে। স¤প্রতি কাভারা প্রদেশের রাজধানী ইলুরিনে মুসলিম শিক্ষার্থীদের হিজাব পরা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। রাজ্য গভর্নর বলেন, উভয় ধর্মকে (খ্রিস্টান ও মুসলমান), বিশেষত নেতা, বিশেষজ্ঞ এবং মিডিয়া ব্যক্তিত্বকে তাদের কর্ম ও বক্তব্যের দায়বদ্ধতার সঙ্গে একত্রে শান্তিপ‚র্ণভাবে বাস করতে আহŸানও জানানো হল। তার এই বক্তব্যের পর পুনরায় হিজাব পরার অনুমতি পেল নাইজেরিয়ার কাভারা প্রদেশের ছাত্রীরা। কাভারা প্রদেশের গভর্নরের নির্দেশ মোতাবেক এখন থেকে ই প্রদেশের শিক্ষার্থীরা হিজাব ব্যবহার করে ক্লাসে উপস্থিত হতে পারবেন। প্রসঙ্গত, নাইজেরিয়া কাভারা প্রদেশের ইলুরিন অঞ্চল দেশটির পশ্চিমে বেনিনের সীমান্তে অবস্থিত। এ অঞ্চলটি মুসলিম অধ্যুষিত। কাভারার ইসলামী অধিকার রক্ষাকারী সংগঠনের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছিল, নারী মুসলিম শিক্ষার্থীরা যাতে তাদের হিজাব ব্যবহার করে তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় সব সাংবিধানিক পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। এএফপি, বিবিসি।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন