ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পিপলস লিজিংয়ের ২৮০ ঋণখেলাপি

অনুপস্থিতদের ঠিকানা চেয়েছেন হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ মার্চ, ২০২১, ১২:০৭ এএম

হাইকোর্টের তলবে সাড়া না দেয়া পিপলস লিজিং কোম্পানির ঋণখেলাপিদের ঠিকানা চেয়েছেন হাইকোর্ট। জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করে তাদের বর্তমান ঠিকানা জানানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বর্তমান ঠিকানা হাতে পাওয়ার পর তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের আদেশ দেবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি মোহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের একক বেঞ্চ এ আদেশ দেন। অবসায়ন প্রক্রিয়ায় থাকা পিপলস লিজিংয়ের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার মেজবাহুর রহমান।

এর আগে প্রতিষ্ঠানটির অবসায়ক (প্রবেশনাল লিকুইডিটর) মো. আসাদুজ্জামান খানের দেয়া এ সংক্রান্ত তালিকা দেখে হাইকোর্ট গত ২১ জানুয়ারি ২৮০ জন ঋণখেলাপিকে তলব করেছিলেন। তাদের মধ্যে গত ২৩ ফেব্রæয়ারি ১৪৩ জন হাজির হওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে মাত্র ৫১ জন উপস্থিত হন। ২৫ ফেব্রæয়ারি দ্বিতীয় দফায় ১৩৭ জনের। ওইদিন উপস্থিত হন ৩৬ জন। গত ৯ মার্চ শুনানি হয়। ওইদিন উপস্থিত হন আরো ৫৬ জন। এদের মধ্য থেকে কয়েকজন ২৪ লাখ টাকা পিপলস লিজিংয়ে ফেরত দেয়ার জন্য আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে জমা দেন। পরবর্তী প্রক্রিয়ায় গতকাল উপরোক্ত আদেশ দেন। এ সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট কাজী এরশাদুল আলম। সরকারপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আব্দুল ওয়াহাব।

এদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের বক্তব্য অনুযায়ী, অর্থ হাতিয়ে পালিয়ে যাওয়ার আগে পি কে হালদার তার আত্মীয়, বন্ধু ও সাবেক সহকর্মীসহ বিভিন্ন ব্যক্তিকে পর্ষদে বসিয়ে যে চারটি ব্যাংকবহিভর্‚ত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিলেন তার একটি হলো পিপলস লিজিং।

১৯৯৭ সালের ২৪ নভেম্বর আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পিপলস লিজিংকে অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এরপর থেকে প্রতিষ্ঠানটি গ্রাহকের কাছ থেকে মেয়াদি আমানত ও বিভিন্ন ব্যাংক-আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে টাকা ধার করে ঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন