ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮, ২৩ রমজান ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

হেফাজত নেতা শরিফউল্লাহ রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০২১, ২:০৫ পিএম

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা এলাকায় ২০১৩ সালে পুলিশে হত্যার উদ্দেশে করা মামলায় হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-প্রচার সম্পাদক মুফতি শরিফউল্লাহর একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় পুলিশকে হত্যার উদ্দেশে করা বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় সুষ্ঠুতদন্তের তদন্তের জন্য তাকে সাতদিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন যাত্রাবাড়ী থানার পরিদর্শক আয়ান মাহমুদ।শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যাত্রাবাড়ীর মীর হাজিরবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে ডিএমপির গোয়েন্দা (ডিবি) ওয়ারী বিভাগ। যাত্রাবাড়ী থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় এজাহারনামীয় আসামি মুফতি শরিফউল্লাহ। ২০১৩ সালের ৬ মে যাত্রাবাড়ী থানায় তার বিরুদ্ধে মামলাটি হয়েছিল।

এর আগে, গত ১২ এপ্রিল ২০১৩ সালে রাজধানীর মতিঝিলে জ্বালাও-পোড়াও মামলায় হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদীকে যৌথ অভিযানে গ্রেফতার করে ডিবি ও র‍্যাব।

একইদিন সকালে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে মামুনুল হক কাণ্ডে হেফাজতের হামলা, ভাঙচুর ও নাশকতায় পুলিশের করা মামলার প্রধান আসামিসহ সংগঠনের চার নেতাকে গ্রেফতার করে র‍্যাব-১১। ওই ঘটনায় যতগুলো মামলা হয়েছে তার প্রত্যেকটিতেই এই চারজন আসামি।

গ্রেফতাররা হলেন- রয়েল রিসোর্টে হামলা, ভাঙচুর ও পুলিশি কাজে বাঁধা এবং নাশকতার মামলার প্রধান আসামি সোনারগাঁও উপজেলা খেলাফত মজলিশের সভাপতি ইকবাল হোসেন (৫০), সোনারগাঁও উপজেলা হেফাজতে ইসলামের আমির মহিউদ্দিন খান (৫০), সোনারগাঁও উপজেলা হেফাজতে ইসলামের সেক্রেটারি শাহাজাহান ওরফে শিবলী (৪৩) ও সোনারগাঁও উপজেলা হেফাজতে ইসলামের সহ-সভাপতি মোয়াজ্জেম (৪৯)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Jack+Ali ১৪ এপ্রিল, ২০২১, ২:২২ পিএম says : 0
Allah's remand is million trillion dangerous than this remand, i warned the security forces fear Allah and do not obey the order which go against Qur'an and Sunnah. Your Boss is Allah. If you security forces still obeying your high command and committing heinous crime muslim and Alem in our sacred country then wait for severe Punishment from Allah. Allah will kill you, you cannot fight Allah who created you. You are committing crime against humanity because Allah has sealed your heart so that you will remain in Hell forever. Alem's are the inheritor of Rasul, those who wage war against them, Allah's warned them: সুরা আল-মাইদাহ: আয়াত:5:33 নিশ্চয়ই আল্লাহ ও তাঁর রসূলের সাথে সংগ্রাম করে এবং দেশে হাঙ্গামা সৃষ্টি করতে সচেষ্ট হয়, তাদের শাস্তি হচ্ছে এই যে, তাদেরকে হত্যা করা হবে অথবা শূলীতে চড়ানো হবে অথবা তাদের হস্তপদসমূহ বিপরীত দিক থেকে কেটে দেয়া হবে অথবা দেশ থেকে বহিষ্কার করা হবে। এটি হল তাদের জন্য পার্থিব লাঞ্ছনা আর পরকালে তাদের জন্যে রয়েছে কঠোর শাস্তি।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন