মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

ধর্ম দর্শন

প্রশ্ন : স্বদেশ প্রেম কি আল্লাহ প্রদত্ত নেয়ামত?

| প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০২ এএম

উত্তর : স্বদেশ প্রেম বা ভালোবাস আল্লাহ প্রদত্ত একটি নিয়ামত। যা মানুষকে বেচে থাকার সাহস ও প্রাণ বির্সজনে সাহসী করে তুলে। স্বদেশ প্রেম ছাড়া স্বাধীনতা,সার্বভৌমত্ব,দেশের সাফল্য ও উন্নয়নের চাকা সচল থাকতে পারে না। এরশাদ হচ্ছে,‘আমি আমার রাসুলগণকে সুস্পষ্ট নির্দশনসহ প্রেরন করেছি এবং তাদের সঙ্গে নাজিল করেছি কিতাব ও ন্যায়নীতি। যাতে মানুষ ন্যায় বিচার প্রতিষ্টা করতে পারে।’(হাদিদ-২৫)। সুতুরাং সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় জীবনে ন্যায় প্রতিষ্টা,পারস্পারিক সহযোগিতা,ভ্রাতৃত্ব পুর্ণ সর্ম্পক স্থাপন এবং ইসলামী আইন ও দন্ডের বিধান কার্যকর করা প্রয়োজন রয়েছে।

আমরা মুসলিম। আমাদের স্বাধীনতা ও নিজস্ব সংস্কৃতিবোধ রয়েছে। সে হিসাবে প্রত্যেক মুসলমানের সামরিক,সংস্কৃতিক,রাজনৈতিক,অর্থনৈতিক আগ্রাসন ও আধিপত্য প্রতিষ্ঠায় সংগ্রাম করার অধিকার রয়েছে। বিশেষ করে স্বদেশ স্বাধীনতা। আমাদের দেশে ১৯৭১ ইং সালে ২৫ শে মার্চ পাক বাহিনী হঠাৎ করে বাঙ্গালীদের উপর ঝাপিয়ে পরে। তখন অস্ত্রহীন মুক্তি বাহিনী ধমর্, বর্ণ ও দল-মত নির্বিশেষে ঐক্য ও আত্ন ত্যাগের বিনিময়ে পাক বাহিনীর বিরুদ্ধে ২৬ শে মার্চ সশস্ত্র সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়েন। দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ শেষে অগনিত মানুষের জীবন ও সম্পদের বিনিময়ে দেশের স্বাধীন-সাববৌমত্ব রক্ষা করেন। এ দেশের মুক্তি লাভের পিছনে মুক্তিকামী জনতার দেশ প্রেম ও দেশাত্নবোধের ভুমিকা ছিল উল্লেখ্য যোগ্য। সবুজ মাঠ রক্তাক্ত। রক্তে মাখা নদীর স্রোত। রক্তের বিনিময়ে এদেশ বিশে^র অন্যতম বৃহৎ মুসলিম রাষ্ট্র হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করেন। যারা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে এ দেশকে স্বাধীন-সার্বভৌম দেশ হিসাবে উপহার দিয়েছে,তাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা। প্রতি বছর ২৬ শে মার্চ কে আমরা স্বাধীনতা দিবস হিসাবে পালন করি। মহান র্আল্লাহ আমাদের স্বাধীনতার দামাল মুক্তি যোদ্ধা, লড়াকু সেনিক,সর্বস্তরের জনতা,লেখকসহ সব নাগরিকের হৃদয়ে স্বাধীনতার গভীর ভালোবাসা জাগ্রত করুক। এই কামনা করছি।

উত্তর দিচ্ছেন : মোহা. আসাদুজ্জামান আসাদ , গ্রন্থকার, প্রভাষক, সাংবাদিক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন