সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫ আশ্বিন ১৪২৮, ১২ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ডিএনডিতে বিশুদ্ধ খাবার পানির সঙ্কট

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে : | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০২১, ১২:০৭ এএম

নারায়ণগঞ্জের ডিএনডির ভেতর পানিবন্দি মানুষের ভোগান্তির সীমা নেই। যার ফলে অনেকেই পানিবাহিত নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। শিল্পকারখানার বিষাক্ত বর্জ্য পানিবদ্ধতার সাথে মিশে একাকার হয়ে আছে। বিবর্ণ আকার ধারণ করেছে পানির রং। বাধ্য হয়ে ময়লা-আবর্জনাযুক্ত ওই পানি মাড়িয়ে তারা চলাচল করছে। রাস্তা ও বাড়ি-ঘর ডুবে যাওয়ায় রান্না ও বাথরুম নিয়ে অবর্ণনীয় ভোগান্তিতে পড়েছে তারা। এছাড়া রিভার্জ ট্যাংকি ডুবে যাওয়ায় বিশুদ্ধ পানির সঙ্কট দেখা দিয়েছে বিভিন্ন এলাকায়। গত মঙ্গলবার ডিএনডির ভেতরের বিভিন্ন এলাকার মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে এমন পরিস্থিতির খবর।
পানিবন্দি মানুষের ভয়াবহ দুর্ভোগে চিত্র হচ্ছে ফতুল্লার লালপুর ও পৌষাপুকুর পাড় এলাকায়। বিশুদ্ধ পানির জন্য তাদের ছুটতে হচ্ছে বহুতল ভবনগুলোতে। কেউ কেউ ছুটে যাচ্ছে পার্শ্ববর্তী এলাকার পরিচিতজনদের বাসা বাড়িতে। অধিকাংশ বাড়ির আসবাবপত্র পানির নিচে তলিয়ে গেছে। কোনো রকমে ঘুমাবার জন্য ইট দিয়ে খাট উঁচু করে তাতেই জড়ো সড়ো হয়ে রাত্রি যাপন করতে হচ্ছে অনেককেই। অনেকেই ভাড়া বাড়ি ছেড়ে চলে গেছেন অন্যত্র। এছাড়া পানিতে ডুবে আছে দোকানগুলোর অর্ধসাটার। রাস্তায় চলছে এখন নৌকা। বর্তমানে লালপুর-পৌষাপুকুর রাস্তায় ১৯টি নৌকা চলাচল করছে। নানা প্রয়োজনে বাসা থেকে বের হতে গিয়ে তাদের অতিরিক্ত ভাড়া গুণতে হচ্ছে।
আসলাম নামে এক বাসিন্দা জানান, ফতুল্লা বাজারে তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। তার প্রতিদিন যাতায়াত খরচ হচ্ছে ২৪০ টাকা। তাই তিনি সকালে বের হন কাজ শেষ করে একবারে রাতে বাসায় ফিরেন। দুপুরের খাবারটা বাইরে খেয়ে নেন। আর যাদের নৌকা দিয়ে যাবারমতো টাকা নেই তারা কোমর পানি মাড়িয়ে পায়ে হেটে প্রতিদিন যাতায়াত করে থাকে বলে তিনি জানান। এতে অনেকেই পানিবাহী নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। অনেকের পায়ে ঘাঁ হয়ে গেছে।
ফতুল্লার কুতুবপুর ইউনিয়নের উকিলবাড়ি, লাল খা, শেয়ার চর, তক্কারমাঠ থেকে ফতুল্লা স্টেশন পর্যন্ত রাস্তা পানির নিচে। এলাকার অবস্থা অনেক খারাপ। বাড়ি-ঘর পানি নিচে তলিয়ে আছে।
এনায়েতনগর ইউনিয়নের ইসদাইর, বুড়ির দোকার এলাকার মানুষের ভোগান্তিও বলে শেষ করা যাবে না। আমির হোসেন একজন জানান, কতদিন ধরেই তো পানিতে কস্ট করতেছি। দিন দিন পানি রং বদলে যাচ্ছে।
র্দুগন্ধ আসছে পানি থেকে। কিন্তু নিরুপায় হয়ে সেই পানি দিয়েই হাটতে হচ্ছে আমাদের। কাকে বলবো এই কস্টের কথা।
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সিদ্ধিরগঞ্জের ৭নং ওয়ার্ডের কদমতলীর অবস্থাও ভয়াবহ। দীর্ঘদিন ধরে ও্ই এলাকার মানুষ পানিবন্দি হয়ে আছে। এলাকার প্রধান সড়কসহ বিভিন্ন সড়ক পানির নিচে। কদমতলী মধ্যপাড়া এলাকার বাসিন্দা এম এ মাসুদ বাদল ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভয়াবহ দিন পার করছি। কবে এর থেকে মুক্তি পাবো একমাত্র আল্লাহই জানেন। বাথরুম পর্যন্ত ডুবে আছে। অবর্ননীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছি আমর

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন