শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬ কার্তিক ১৪২৮, ১৪ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সউদী আরব থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সরিয়ে নিলো যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:৩৮ এএম

সউদী আরব থেকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ও প্যাট্রিয়ট সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। চলতি সপ্তাহেই এগুলো সরিয়ে নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে বার্তা সংস্থা এপি। স্যাটেলাইট ইমেজ বিশ্লেষণ করে এপি জানায়, সম্প্রতি বেশ কয়েকবার ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের হামলার শিকারও হয় দেশটি। এরপরেও দেশটি থেকে এই আধুনিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সরিয়ে নিলো যুক্তরাষ্ট্র। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।
এদিকে মিসাইল ব্যবস্থা সরিয়ে নেয়ার কথা স্বীকার করে সউদী সরকার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নিজেদের ভূমি, সাগর, আকাশ ও নাগরিকদের সুরক্ষার ক্ষমতা আছে সউদী আরবের। তবে যুক্তরাষ্ট্রকে এখনও মিত্র হিসেবে উল্লেখ করে দু’দেশের সুসম্পর্ক অটুট আছে বলে জানায় রিয়াদ।
খবরে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর এখন মধ্যপ্রাচ্য থেকেও নিজের অবস্থান গুটিয়ে নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এখনও আরব দেশগুলোতে হাজার হাজার মার্কিন সেনা রয়েছে। এই সেনারা সেখানে রয়েছে ইরানের ওপরে চাপ সৃষ্টি করতে। তবে উপসাগরীয় দেশগুলো এখন ভয় পাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র হয়তো এ অঞ্চল থেকেও সেনা প্রত্যাহার শুরু করবে।
যদিও এখনও হাজার হাজার মার্কিন সেনা আরব উপদ্বীপ জুড়ে ইরানের হামলা মোকাবিলায় অবস্থান করছে। উপসাগরীয় আরব দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে উদ্বিগ হয়ে পড়ছে। কারণ দেশটির সামরিক বাহিনী এশিয়ায় ক্রমবর্ধমান হুমকি বুঝতে পারে যার জন্য এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা প্রয়োজন।
বিশ্বশক্তির সঙ্গে ইরানের ভেঙে পড়া পরমাণু চুক্তি নিয়ে ভিয়েনায় আলোচনা স্থবির হয়ে পড়ায় উত্তেজনা তুঙ্গে রয়েছে, যা এই অঞ্চলে ভবিষ্যতে দ্বন্দ্বের আশঙ্কা বাড়িয়েছে। তার মধ্যেই সউদী থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা প্রত্যাহার করলো ওয়াশিংটন। অথচ মাঝেমধ্যেই এই দেশটিকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে থাকে ইয়েমেনের ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীরা। সূত্র : আল জাজিরা, এপি

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন