বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ইউপি নির্বাচন: সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কায় সাউথখালীর ৮সদস্য প্রার্থী

শরণখোলা (বাগেরহাট) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:২১ পিএম

সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে শঙ্কায় পড়েছেন বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের আট ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও তাদের বেপরোয়া কর্মীবাহিনীর বিরুদ্ধে নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিঘ্নিত করার অপচেষ্টা, নিরীহ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার হুমকি এবং ভোটের দিন ভোট কেন্দ্র দখলের অভিযোগ করেছেন ওই আট প্রার্থী।

এসব অভিযোগের প্রতিকার চেয়ে এবং সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের দাবিতে তারা বাগেরহাটের জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন। অভিযোগকারীরা হলেন, ১নম্বর সোনাতলা ওয়ার্ডের প্রার্থী শফিকুল ইসলাম ডালিম, ২নম্বর বকুলতলা ওয়ার্ডের প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন খলিল, ৩নম্বর উত্তর-দক্ষিণ তাফালবাড়ী ওয়ার্ডের প্রার্থী জামাল হোসেন জমাদ্দার, ৪নম্বর রায়েন্দা ওয়ার্ডের প্রার্থী শামসুল আলম রিপন, ৫নম্বর উত্তর সাউথখালী ওয়ার্ডের আল আমিন খান, ৭নম্বর বগী ওয়ার্ডের আবু হানিফ মুন্সী, ৮নম্বর চালিতাবুনিয়া ওয়ার্ডের প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন খলিফা এবং ৯নম্বর খুড়িয়াখালী ওয়ার্ডের প্রার্থী বাচ্চু মুন্সী।

এই আট ইউপি সদস্য প্রার্থী অভিযোগ করে বলেন, আমরা সবাই আওয়ামীলীগের নিবেদিত কর্মী। এর মধ্যে অনেকেই ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পর্যায় দলের বিভিন্ন পদে রয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে অনেকেই জামায়াত-বিএনপির সক্রিয় কর্মী। তরপরও আমরা নিজ দলের নেতাদের কাছ থেকে কোনোপ্রকার সহযোগিতাতো দূরের কথা উল্টো আমরাই হয়রানির শিকার হচ্ছি। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও তাদের বাহিনীর হাতে ইতোমধ্যে আমার একাধিক হামলা-মামলার শিকার হয়েছি। তারা অনেকেই বিরোধী দলের ওইসব প্রার্থীদের পক্ষে প্রকাশ্যে প্রচার-প্রচারণায় নেমেছেন।

তারা আরো অভিযোগ করে বলেন, সাউথখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান পারভেজ তিনি নিজেই প্রতিদ্বন্দ্বী ওইসব প্রার্থীদের পক্ষে সরাসরি প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন। এমনকি, তিনি তার সমর্থিত প্রার্থীদের যে কোনোমূল্যে বিজয়ী করে আনবেন বলেও ঘোষণা দেন। তার এমন প্রকাশ্য ঘোষণায় আমরা ভীতির মধ্যে আছি। এতে আমাদের কর্মী সমর্থক ও সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। আমরা নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ চাই।

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান বলেন, আমার বিরুদ্ধে যারা অভিযোগ করেছেন তারা জনশূন্য প্রার্থী। তাছাড়া, কোনো প্রার্থীর পক্ষে প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণের অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। যারা এসব অপপ্রচার করছেন তারা এর একটিও প্রমাণ করাতে পারবেন না। আমি সাউথখালী ইউনিয়নে একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানাই।

এব্যাপারে সাউথখালী ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. ওয়াসিম উদ্দিন বলেন, ইউপি সদস্য পদপ্রার্থীদের অভিযোগের বিষয়ে পর্যবেক্ষণ করে সত্যতা পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন