বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কাবুলে ড্রোন হামলায় মৃতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ভাবছে পেন্টাগন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:৪৫ এএম

মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত সাত শিশু সহ মোট দশ জন বেসামরিক নাগরিকের হত্যার দায় স্বীকার করে আগেই ক্ষমা চেয়ে নিয়েছে মার্কিন প্রশাসন। এবার তারা মৃতদের পরিবারের প্রতি সাহায্যের হাত বড়ানোর কথা ঘোষণা করল। পেন্টাগন সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার চিন্তাভাবনা চলছে। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত এখনও কিছু জানা যায়নি।

গত মাসে সন্ত্রাসবাদ রুখতে কাবুলে ড্রোন হামলা চালায় আমেরিকা। কিন্তু সেই ড্রোন হামলায় সন্ত্রাস দমনের বদলে মৃত্যু হয়েছিল বহু আফগান নাগরিকের। শুক্রবার মার্কিন সেন্ট্রাল কম্যান্ডের প্রধান জেনারেল কেনেথ ফ্রাঙ্ক ম্যাকেঞ্জি জানান, কাবুল বিমানবন্দরে উদ্ধারকার্য চালানোর সময় মার্কিন সেনার উপর হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। পাল্টা জবাব দেয় মার্কিন সেনা। তারা ড্রোন হামলা চালায়। কিন্তু তাদের এই ড্রোন হামলার সিদ্ধান্ত ভুল ছিল। যার জন্য ম্যাকেঞ্জি ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন। গত মাসে মার্কিন ড্রোন হামলায় সাতটি শিশুসহ মোট ১০ জন সাধারণ নাগরিকের মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করেছে আমেরিকার সেনাবাহিনীও। এবার তাঁদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও চিন্তা করছে পেন্টাগন।
মার্কিন সেনাবাহিনী ওই ঘটনাকে ‘ট্রাজেক মিসটেক’ বা ভয়াবহ ভুল বলে অভিহিত করেছে। উল্লেখ্য, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের আগে ২৯ শে আগস্ট আইএসের আত্মঘাতী বোমারুদের টার্গেট করে ওই হামলা চালানো হয়েছিল। এসব হামলাকারী কাবুল বিমানবন্দরে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সেনাবাহিনীর জন্য আসন্ন হুমকি ছিল। তাই তাদেরকে লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালানো হয়।
আমেরিকার সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান মেরিন করপোরাল জেনারেল ফ্রাঙ্ক ম্যাকেঞ্জি বলেছেন, ‘বিমানবন্দরে ওই গ্রুপটি হুমকি হয়ে উঠেছিল। তাই আস্থার সঙ্গে তাদেরকে বিরত রাখতে হামলা চালানো হয়েছিল। কিন্তু আমাদের অনুসন্ধান এখন বলছে, হামলাটি চালানো হয়েছিল ভয়াবহ ভুলভাবে।’
তিনি মনে করেন, ওই হামলায় যারা মারা গিয়েছেন, তারা আইএসের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত আইসিস-খোরাসানের কোনও সদস্য ছিলেন না। এমনকি তাঁরা মার্কিন সেনাদের প্রতি কোনো হুমকিও ছিলেন না। এ জন্য তাদেরকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা বিবেচনা করছে পেন্টাগন। সূত্র : রয়টাস, সিএনএন

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন