মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

স্টকহোম চলচ্চিত্র উৎসবের প্রধান জুরি সাহরা কারিমি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৩:৪৩ পিএম

আসন্ন স্টকহোম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রধান জুরি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন আলোচিত আফগান চলচ্চিত্রকার এবং একমাত্র নারী হিসেবে আফগান ফিল্ম অর্জানাইজেশনের প্রধানের দায়িত্ব পালনকারী সাহরা কারিমি। সুইডেনের রাজধানীতে উৎসবটির ৩২তম আসর বসবে আগামী ১০ নভেম্বর; চলবে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত। স্টকহোম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে শতাধিক চলচ্চিত্রের প্রিমিয়ার হওয়ার কথা রয়েছে।

স্টকহোম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের পরিচালক জিট শেনিয়াস বলেন, ‘সাহরা কারিমির মতো সাহসী চলচ্চিত্রকারদের পাশে রয়েছি আমরা। আমাদের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে আফগানিস্তান সংকট ঘিরে তার বার্তা ছড়িয়ে দেব। স্টকহোম চলচ্চিত্র উৎসবের ৩২তম আসরে জুরি প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিতে আমাদের আমন্ত্রণ তিনি গ্রহণ করায় আমরা গর্বিত’।

উল্লেখ্য, স্টকহোম চলচ্চিত্র উৎসব এর আগেও রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের শিকার চলচ্চিত্রকারদের পাশে দাঁড়িয়েছে। অতীতে চীনা চলচ্চিত্রকার ও চিত্রশিল্পী আই ওয়েই ওয়েই এবং ইরানি চলচ্চিত্রকার মোহাম্মদ রাসুলফ’কে এ উৎসব থেকে জানানো হয়েছে সম্মান।

প্রসঙ্গত, ১৫ আগস্টে তালেবানরা আফগানিস্তানের রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের পর দেশ ছেড়ে চলে আসেন সাহরা। তালেবানরা আফগানিস্তান দখল করে নেয়ার আগে সাহরা কারিমি পরিকল্পনা করছিলেন একটি চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন করার এবং আরও কয়েকটি সিনেমা হল খোলার। কিন্তু সব আশা শেষ হয়ে যায় যখন ১৫ আগস্ট কাবুল দখল করে নেয় তালেবানরা।

প্রাণ ভয়ে পরিবার নিয়ে দেশ ছাড়েন সাহরা, চলে যান ইউক্রেনে। এ সময়ে খোলাচিঠিতে বিশ্ববাসীর কাছে নিজ দেশের নাগরিকদের, বিশেষত শিল্পী ও নারীদের পক্ষে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান তিনি। এরপর সদ্য সমাপ্ত ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের বিশেষ প্যানেল ডিসকাশনেও অংশ নেন ‘হাভা’, ‘মরিয়ম’, ‘আয়েশা' চলচ্চিত্রের নির্মাতা সাহরা কারিমি।

সম্প্রতি তিনি আফগানিস্তানের চলচ্চিত্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলেছেন টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে। তিনি সংশয় প্রকাশ করেছেন, আফগানিস্তান ফিরে যাওয়ার সুযোগ পেলেও সিনেমা তৈরির কাজ করতে পারবেন কিনা তা নিয়ে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Dadhack ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০৭ পিএম says : 0
A muslim cannot be an actor or model. Cinema, Drama, Music, Dancing and Sport industries are the breeding ground of adultery, fornication, lewdness, nakedness, obscenity as such it destroy human beings morality, i.e: individual, family, social life, country life and around the world. Allah didn't create us us for all these harram things.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন