মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বিশ্বের বৃহত্তম ভাসমান বন্দর বানাবে সউদী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

সউদী আরব লোহিত সাগরে বিশ্বের বৃহত্তম ভাসমান শিল্প বন্দর নির্মাণের জন্য তার সর্বশেষ উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা প্রকাশ করেছে। নিউইয়র্ক সিটির থেকে ৩৩ গুণ বড় অষ্টভুজ আকৃতির শহরটির নাম দেয়া হয়েছে অক্সাগন এবং এটিকে বিশ্বের প্রথম সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় বন্দর এবং সমন্বিত সুযোগ সুবিধার সম্বলিত কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটি। এটি সউদী আরবের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ শিল্প বন্দর কেন্দ্র হবে এবং পরিচালনার জন্য রোবট এবং আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হবে।

যদিও এখনও এর বিশদ বিবরণ প্রকাশ করা হয়নি, তবে সম্প্রতি এক আনুষ্ঠানিক সরকারী বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, শহরটি সউদী আরবের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত নির্মাণাধীন নতুন শহর নিওমের প্রান্তে নির্মাণ করা হবে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে, অক্সাগন একটি কার্বন ও দূষণ মুক্ত শহর হবে, যা সম্পূর্ণরূপে নবায়ন যোগ্য শক্তি দ্বারা চালিত হবে। কার্বন নিরপেক্ষতা অর্জনের জন্য প্রকল্পের পরিকল্পনার সাথে জড়িত কর্তৃপক্ষের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য এখনও প্রকাশ করা হয়নি। সুয়েজ খালের নিকটবর্তী প্রস্তাবিত অক্সাগন হ’ল নিওমের অর্থনৈতিক সংস্থানের কৌশলগুলির পরবর্তী পর্যায়, যা ভবিষ্যতে মানুষের জীবনযাপন এবং পেশাগত কাজের পদ্ধতিকে পুনরায় সংজ্ঞায়িত করবে। বিশ্বের অন্য ব্যস্ততম বাণিজ্য রুট লোহিত সাগর দিয়ে প্রতি বছর সমস্ত বৈশ্বিক বাণিজ্যের ১৩ শতাংশ সংঘটিত হয়। সেখানে সুয়েজ খালের কাছাকাছি অক্সাগনের অবস্থান এটিকে বিভিন্ন দিক থেকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ করে তুলেছে। এর আদর্শ অবস্থান ভবিষ্যতে এটিকে অতুলনীয় সুবিধা এনে দেবে।

সউদী ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বলেছেন, ‘অক্সাগন ভবিষ্যতে শিল্প বিকাশের জন্য বিশ্বের দৃষ্টিভঙ্গি পুন:সংজ্ঞায়িত করতে অবদান রাখবে, পরিবেশ রক্ষা করবে এবং নিওমের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে।’ নিওমের সিইও নাদমি আল-নানেরন মতে, ‘অক্সাগন হবে বিশ্বের অন্যতম প্রযুক্তিগতভাবে উন্নত লজিস্টিক হাব যেখানে অত্যাধুনিক সমন্বিত বন্দর এবং বিমানবন্দর সংযোগ রয়েছে।’ নিয়ন হ’ল ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের মস্তিষ্ক প্রসূত এবং ‘ভিশন ২০৩০’ নামে পরিচিত রক্ষণশীল সউদী আরবের আধুনিকীকরণের জন্য ১৩ বছরের পরিকল্পনার প্রধান প্রকল্প। সউদী আরবের পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (পিআইএফ) দ্বারা অর্থায়ন করা হচ্ছে এবং ক্রাউন প্রিন্স নিওম এবং পিআইএফ উভয়েরই চেয়ারম্যান।

প্রিন্স মোহাম্মদ বলেছেন, ‘অক্সাগন নিওম এবং দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং বৈচিত্র্যের জন্য অনুঘটক হবে, ভিশন ২০৩০ এর অধীনে আমাদের উচ্চাকাক্সক্ষাকে পূরণ করবে। এটি সউদী আরবের আঞ্চলিক বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে অবদান রাখবে এবং বিশ্বব্যাপী বাণিজ্য প্রবাহের একটি নতুন কেন্দ্রস্থল তৈরিতে সহায়তা করবে। এটা দেখে আমি খুশি।’ সূত্র : লাক্সারি লঞ্চেস, মেট্রো।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ইকবাল শেখ ২৫ নভেম্বর, ২০২১, ৬:১৮ এএম says : 0
খুব ভালো উদ্যোগ
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps