সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

এই শীতে অসহায় মানুষদের ৫০০ জ্যাকেট উপহার দিলেন প্রিসিলা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:৩৯ পিএম | আপডেট : ৭:৪২ পিএম, ১৩ জানুয়ারি, ২০২২

একসময় অভিনয়, মডেলিং, নাচ ও গান শিখেছিলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী তরুণী প্রিসিলা নাজনীন ফাতেমা। অভিনয় ও মডেলিং বিষয়ে কোর্স করেছিলেন নিউইয়র্ক ফিল্ম একাডেমি থেকে। গান ও নাচের প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন স্কুলে। গান গেয়ে নিউইয়র্কে পুরস্কারও পেয়েছিলেন। এছাড়াও ব্রডওয়ে শোতে পারফর্মের জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তব সব ছাপিয়ে প্রিসিলা এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ পরিচিত মুখ।

তিনি আলোচনায় এসেছেন মূলত নিজের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে সমাজ সচেতনতামূলক ও অনুপ্রেরণাদায়ক বিভিন্ন ভিডিও বানিয়ে। বিভিন্ন সময় অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে এরইমধ্যে বেশ নাম কুড়িয়েছেন তিনি। তার উপস্থাপনারও প্রশংসা করে থাকেন সবাই। এবার শীতের মধ্যে দেশের গরিব, অসহায় ও নিম্নআয়ের মানুষদের পাঁচশর বেশি জ্যাকেট ও গরম কাপড় উপহার দিয়েছেন প্রিসিলা। গত ডিসেম্বর থেকে চলতি জানুয়ারি পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জেলার গরিব, অসহায় ও নিম্মআয়ের মানুষদের তার পক্ষ থেকে এসব উপহার পৌঁছে দেওয়া হয়।

তবে ঢাকার রাস্তায় কাজ করা রিকশাওয়ালা, পরিচ্ছন্নতা কর্মী প্রমুখের মাঝে জ্যাকেট বেশি বিতরণ করা হয় বলে জানান এই মানবিক কন্যা। তাছাড়া রাজশাহী ইউনিভার্সিটি এলাকায় প্রিসিলার পক্ষ থেকে এবার পর পর দুই বার শীতবস্ত বিতরণ করা হয়। যার মধ্যে ছিল বড়দের জ্যাকেট, মহিলাদের জ্যাকেট ও শিশুদের শীতের কাপড়। রংপুরেও তিন বার শীতবস্ত বিতরণ করা হয় প্রিসিলার পক্ষ থেকে। যার মধ্যে ছিল বড়দের জ্যাকেট, মহিলাদের জ্যাকেট, শিশুদের শীতের কাপড় ও কম্বল।

হবিগঞ্জ, কুয়াকাটা, বান্দরবান, কক্সবাজার, কুমিল্লা, টাঙ্গাইল, বগুড়া, ঝিনাইনাইদহ প্রভৃতি জেলাতেও শীতের জ্যাকেট, অন্য গরম কাপড় ও কম্বল পাঠান প্রিসিলা। কিছু কিছু জায়গায় নগদ টাকাও পাঠান তিনি। প্রিসিলা গণমাধ্যমকে বলেন, বিদেশে থাকলেও দেশের এসব মানুষদের জন্য আমার খারাপ লাগে। এই তীব্র শীতের মধ্যেও জীবন জীবিকার প্রয়োজনে রাস্তায় বের হয়ে কাজ করতে হচ্ছে তাদের। ফলে জ্যাকেট এবং শীতবস্ত্রগুলো পেয়ে তাদের মুখে কিছুটা হলেও হাসি ফুটেছে। যা আমাকেও আনন্দ দিয়েছে।

তিনি আরও যোগ করেন, শীতের কাপড়গুলো ভালো মানের হওয়ায় অনেকেই বেশ খুশি হয়েছেন। কেউ কেউ তো এটা ব্যবহারও করতে চাচ্ছেন না। আমাকে তারা বলেছেন, বিশেষ কোন জায়গায় বেড়াতে যাওয়ার সময় এটা পরবেন। বিষয়গুলো সত্যি ভালো লাগার মতো।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Murad Murad ১৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:৩৭ পিএম says : 0
Thakurgaon kicu Dile vlo hot?
Total Reply(0)
MD MOSTAFIZUR RAHMAN ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৪:০৪ পিএম says : 0
kub bhalo kag.allah apnakr bhalo korbe pas oakto namaz porben,porda korben.protita ketre suk paben.insaallah.
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন