বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সবাইকে নিয়ে কাজ করবো : আইভী

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:৪২ এএম

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। নির্বাচনে জয় লাভের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আইভী জানিয়েছেন, তিনি তার অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে সবাইকে নিয়ে কাজ করবেন।
রোববার (১৬ জানুয়ারি) রাতে নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ চেয়ারম্যানবাড়ীতে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নাসিক নির্বাচনে টানা তিনবার জয়ী আইভী।
তিনি বলেন, ‘আমার বিজয় হয়েছে। আমি আমার আল্লাহ, দল ও নেত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ। আমি নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞ। আমি সবাইকে নিয়ে কাজ করবো। আমার অসমাপ্ত কাজ শেষ করবো।’
তৈমূরের ভোট কারচুপির অভিযোগ প্রসঙ্গে আইভী বলেন, ‘আমি এখনো পরিষ্কার জানি না তিনি কী অভিযোগ করেছেন। কিন্তু যদি করে থাকেন সেটি আপনারা (গণমাধ্যমকর্মীরা) দেখেছেন। এ নির্বাচনে সারাদিন গণমাধ্যমের প্রচুর কর্মী ছিল। প্রচুর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ছিল। কোথাও কোনো ধরনের অভিযোগ নেই।’ তিনি বলেন, ‘বরং সকাল থেকেই ভোট স্লো ছিল। আমি বারবার অভিযোগ করেছি, স্লো না হলে ভোটের ব্যবধান এক লক্ষের বেশি হতো।’
আইভি বলেন, ‘আমি আওয়ামী লীগের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে কৃতজ্ঞ। আমি দলের প্রতি কৃতজ্ঞ, জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞ। এবং আমার যে নেতাকর্মীরা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।’
নবনির্বাচিত মেয়র বলেন, ‘আগামী পাঁচ বছর অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাব। এমনকী জীবনের শেষ পর্যন্ত উৎসর্গ করতে চাই এ নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য।’
তিনি বলেন, এই জনগণ আর জনস্রোত আমার শক্তি। তারা না থাকলে আমি নারায়ণগঞ্জে দাঁড়িয়ে থাকতে পারতাম না। দল যেমন আমার প্রতি আস্থা রেখেছে, এখানকার জনগণও কখনো আমাকে বিমুখ করেনি। আমি শেখ হাসিনার ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে তাদের সেবা করতে চাই।’
আইভি বলেন, ‘আমার প্রতিটি নির্বাচন চ্যালেঞ্জ ছিল। সেই তুলনায় এ নির্বাচনও কম নয়। কিন্তু আমার জনশক্তি আর জনস্রোত আমাকে নির্বাচিত করেছে।’
এর আগে ২০১১ সালে প্রথমবার এবং ২০১৬ সালে দ্বিতীয়বার জয়ী হয়েছিলেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।
রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। এরপর ফলাফল আসতে থাকে। নাসিক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার ফল ঘোষণা করেন। সন্ধ্যা নাগাদই আইভীর জয়ের আভাস মিলতে থাকে। শেষ পর্যন্ত তার জয়েরই খবর আসে
ঘোষিত ১৯২টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফলে দেখা যায়, মেয়র পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত আইভী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন এক লাখ ৬১ হাজার ২৭৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার হাতি প্রতীকে পেয়েছেন ৯২ হাজার ১৭১ ভোট।
নাসিকের ২৭ ওয়ার্ডের ১৯২টি ভোটকেন্দ্রে এক হাজার ৩৩৩ ভোটকক্ষে হয় নির্বাচন। ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে পাঁচ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন ভোটারের বিপরীতে প্রায় ৫০ শতাংশ ভোট পড়ে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে বড় ধরনের কোনো অনিয়ম বা সংঘাতের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন