ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

যে ব্লকবাস্টারগুলো শাহরুখ খান ছেড়ে দিয়েছেন

প্রকাশের সময় : ৭ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বলিউডে মুকুটহীন বাদশাহ হলেন শাহরুখ খান। তার জনপ্রিয়তা তার অভিনীত চলচ্চিত্রের সাফল্যকে অনেক দূর ছাড়িয়ে গেছে। তার শতকোটি ক্লাবের অন্তর্ভুক্ত অনেকগুলো চলচ্চিত্র আছে। এরপরও বলিউডের অনেকগুলো বøকবাস্টার বা ক্লাসিক হিট তার হাতছাড়া হয়ে গেছে। শাহরুখ ভক্তদের অনেকেই মনে করে তার ফিল্মগুলো নেয়া জরুরি ছিল। কিন্তু কখনও ডেট জটিলতা। আবার কখনও বনিবনা না হওয়াতে ফিল্মগুলো ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন তিনি।
‘এক থা টাইগার’ : পরিচালক কবির খানের প্রথম পছন্দ ছিল শাহরুখ। কিন্তু ডেট সংকটের কারণে তিনি ফিল্মটি নিতে পারেননি। তার ‘জব তক হ্যায় জান’ ফিল্মটির সঙ্গে ডেট সাংঘর্ষিক ছিল। এতে তার নায়িকা ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফ; তিনি আবার ‘এক থা টাইগার’ ফিল্মটিরও নায়িকা ছিলেন।
‘থ্রি ইডিয়টস’ : এটি তৃতীয় চলচ্চিত্র যেটি শাহরুখের লোকসান কিন্তু আমির খানের লাভ। এর আগেরগুলো হল ‘লাগান’ এবং ‘রঙ দে বাসন্তি’। ‘থ্রি ইডিয়টস’ ফিল্মটির প্রযোজক বিধু বিনোদ চোপড়া একসময় বলেছিলেন শাহরুখই ছিল তার প্রথম পছন্দ।
‘মুন্নাভাই এমবিবিএস’ : মুন্নাভাই চরিত্রে সঞ্জয় দত্তের জায়গায় শাহরুখ বা অন্য কাউকে ভাবা যায়? সঞ্জয়ের পড়তি ক্যারিয়ারকে ফিল্মটি কোথা নিয়ে গেছে কল্পনাই করা যায় না। অথচ তার করার কথা ছিল জহিরের (জিমি শেরগিল) চরিত্রটি। শাহরুখ চলচ্চিত্রটিকে সায় দেননি।
‘লাগান’ : শাহরুখের কাছে আমিরের এই ফিল্মটির জন্য কৃতজ্ঞ থাকা উচিত কারণ বলিউড বাদশাহ ফিল্মটি করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে ভুবনের ভূমিকায় আমিরের নামটি প্রস্তাব করেন। ‘লাগান’ ছিল অস্কারের বিদেশি ভাষা ভিত্তিক চলচ্চিত্র বিভাগে তৃতীয় ভারতীয় চলচ্চিত্র।
‘কহো না পেয়ার হ্যায়’ : রাকেশ রোশন চলচ্চিত্রটির জন্য শাহরুখ খানকেই ভেবেছিলেন। কিন্তু তিনি ফিরিয়ে দিলে এটির মাধ্যমে তার ছেলে হৃতিক রোশনের বলিউড অভিষেক হয়। এটি সবচেয়ে বেশি পুরস্কার অর্জনকারী বলিউড চলচ্চিত্র।
‘যোধা আকবর’ : শোনা যায় আশুতোষ গোয়ারিকার তার ‘স্বদেশ’ চলচ্চিত্রটির লোকসান তুলে আনার জন্য এটিতে শাহরুখকে কাস্ট করতে চেয়েছিলেন। দূর লোকেশনে শুটিংয়ে অংশ নেয়া কঠিন হবে ধরে নিয়ে শাহরুখ পরিবারকে বেশি সময় দেবার সিদ্ধান্ত নেন।
‘রঙ দে বাসন্তি’ : ‘লাগান’ ফিরিয়ে দেবার ছয় বছর পর শাহরুখ এই ফিল্মটি ছেড়ে দেন আর আমির তা লুফে নেন। এই ফিল্মটি বাফটা, গোল্ডেন গেøাব এবং অস্কার মনোনয়ন লাভ করে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন