বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

দুই প্রণালি বন্ধ করছে তুরস্ক, চলবে শুধু রুশ যুদ্ধজাহাজ

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০২২, ১:৪৩ পিএম

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু শুক্রবার বলেছেন, আঙ্কারা বসফরাস এবং দারদানেলেস প্রণালি দিয়ে যুদ্ধজাহাজ চলাচল বন্ধ করে দিতে পারে। তবে রাশিয়া তাদের নৌবহরকে নিজেদের ঘাঁটিতে ফেরত নেয়ার জন্য প্রণালি দুইট ব্যবহার করতে পারবে।

‘ইউক্রেন আমাদেরকে একটি আনুষ্ঠানিক অনুরোধ পাঠিয়েছে (রাশিয়ান যুদ্ধজাহাজের জন্য প্রণালি বন্ধ করে দেয়ার জন্য)। মন্ট্রেক্স কনভেনশনের বিধানগুলি খুবই স্পষ্ট এবং সুনির্দিষ্ট। আজ অবধি, তুরস্ক নিঃসঙ্কোচে মন্ট্রেক্স কনভেনশন মেনে চলছে। ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব। যে যুদ্ধে তুরস্ক জড়িত নয় তার পক্ষের প্রতি। তুরস্ক প্রণালী দিয়ে যুদ্ধজাহাজ চলাচল সীমিত করতে পারে। তবে মন্ট্রেক্স কনভেনশন এও বলে যে যুদ্ধে জড়িত দেশগুলির জাহাজের তাদের ঘাঁটিতে ফিরে যাওয়ার অধিকার রয়েছে এবং করা উচিত। এটি করার অনুমতি দেয়া হবে,’ হুরিয়েত সংবাদপত্র কাভুসোগলুকে উদ্ধৃত করে বলেছে।

শীর্ষ কূটনীতিকের মতে, তুর্কি বিশেষজ্ঞরা বিষয়টি অধ্যয়ন করছেন এবং ‘যদি একটি যুদ্ধকালীন তুরস্কে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি বোডনার বৃহস্পতিবার আঙ্কারায় তুর্কি-নিয়ন্ত্রিত প্রণালী দিয়ে রুশ যুদ্ধজাহাজ চলাচল সীমিত করার আহ্বান জানিয়েছেন। পরিস্থিতি আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয় তবে প্রক্রিয়া শুরু হবে।’ ‘স্পষ্টতই, রাশিয়ার আক্রমণকে যুদ্ধ হিসাবে বর্ণনা করতে তুরস্কের এগুলো প্রয়োজন,’ কাভুসোলগু ব্যাখ্যা করেছেন।

উল্লেখ্য, গত মার্চে রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ডনবাস প্রজাতন্ত্রের প্রধানদের অনুরোধের ভিত্তিতে একটি বিশেষ সামরিক অভিযান ঘোষণা করেছেন। রাশিয়ান নেতা জোর দিয়েছিলেন যে, মস্কোর ইউক্রেনীয় অঞ্চল দখল করার কোন পরিকল্পনা নেই। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পরে জানিয়েছে যে, রাশিয়ান সশস্ত্র বাহিনী ইউক্রেনের শহরগুলিতে হামলা চালাচ্ছে না। মন্ত্রণালয় জোর দিয়েছিল যে, ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামো নির্ভুল অস্ত্র দ্বারা ধ্বংস করা হচ্ছে এবং বেসামরিক নাগরিকদের জন্য কোন হুমকি নেই। সূত্র: তাস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
jack ali ৬ জুন, ২০২২, ৯:৪৯ পিএম says : 0
সিরিয়াতে কাফের আল বাশার এর সাথে একযোগে সুন্নি মুসলিম দেরকে হত্যা করেছে তাদের বাড়িঘর স্কুল কলেজ হসপিটাল সবকিছু মাটির সাথে গুড়িয়ে দিয়েছে লক্ষ লক্ষ লক্ষ লক্ষ লোক আজ রিফিউজির হয়ে বিভিন্ন স্থানে কত কষ্টের মধ্যে আছে আর এই তুরস্ক রাশিয়ার সাথে সম্পর্ক তার ভালো ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক তার ভাল এরা সব মুনাফিক
Total Reply(2)
monu ৭ জুন, ২০২২, ৯:৩৮ পিএম says : 0
You are right.But most people dont understand that.
Monjur Rashed ১২ জুন, ২০২২, ১:২৩ পিএম says : 0
Please mention the name of one MUMIN country in the world.
Rocky Pathan ৭ জুন, ২০২২, ২:০২ পিএম says : 0
মি:আলী আপনার কথা ঠিক আছে কিন্তু সমস্যা হচ্ছে যে তুরস্কা তো আগে নিজেরটা ভাবতে হবে তাই না তবে আমি আপনার সাথে সহমত আল্লাহ পাক যেন সবাইকে নেক হায়াত দান করুক সবাইকে যেন হেদায়েত দান করুক আমিন
Total Reply(0)
Khondaker Shahjahan ৭ জুন, ২০২২, ৫:১৫ পিএম says : 0
কে সুন্নি আর কে সিয়া এসব ফালতু বিতর্ক করে মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টি মোটেই কাম্য নয়। সিরীয় আর তুর্কী বিতর্ক করার আগে আমাদের সৌদি সুন্নি বাদশাদের বিচার আগে করা জরুরি। সৌদি আরব তো আমেরিকা আর ইসরাইলীদের বিশ্বস্ত দালাল। তামাম দুনিয়ার সুন্নীরা এর কি বিচার করেছে, সামান্য প্রতিবাদও কোন সুন্নি অধ্যুষিত দেশ করেনি। কাজেই সিয়া-সুন্নি বিতর্ক একটি অবান্তর বিষয় এবং এসব করে মুসলমানদের বৃহত্তর ঐক্য নষ্ট হচ্ছে।
Total Reply(1)
monu ৭ জুন, ২০২২, ৯:৪৩ পিএম says : 0
সাউদির বর্তমান শাসক রা খারাপ,তার মানে সব সৌদি রা খারাপ না।বাদশা ফয়সাল ফিলিস্তিনের জন্য আমেরিকার উপর নিসেধাজ্ঞা আরোপ করে।এতে আমেরিকার অর্থনীতি ঝুইলা পরে।পরে তাকে আমেরিকা হত্যা করায়।ইরান কি করসে?
monu ৭ জুন, ২০২২, ৯:৪০ পিএম says : 0
জেইসব মুসলিম কাফেরদের সাথে যুদ্ধ করে তারা সন্ত্রাসি।আর যারা মুসলিম হত্যাকারী রাসিয়া,আমেরিকা আর ইসরাইলের সাথে বন্ধুত্ব করে তারা ভালো মুস্লিম।ভাই কন দুনিয়ায় থাকি।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন