সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ভারতের গোলামী করে আ.লীগ ক্ষমতায় থাকতে চাইছে

সিলেটে পীর সাহেব চরমোনাই

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০২২, ১২:০০ এএম

দিল্লীর কাছ থেকে পরামর্শ ও কৌশল শিখে দেশ চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রীরা বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম পীর সাহেব চরমোনাই। তিনি বলেছেন, ভারত পানিতে আমাদের ডুবিয়ে দিচ্ছে অথচ সরকারের মন্ত্রীরা দিল্লির কাছে পরামর্শ নিয়ে দেশ চালানোর কথা বলছেন। গতকাল বুধবার সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ, গণদোয়া ও ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি আরো বলেন, ভারতের গোলামী করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকতে চাইছে।

মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, সিলেটে বন্যায় লাখ লাখ মানুষ পানিবন্দী অথচ বানভাসিদের পর্যাপ্ত পরিমাণে খাবার ও বিশুদ্ধ পানি নেই। সরকারি ত্রাণের দেখা মিলছে না। আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে কেউ ত্রাণ নিয়ে গেলে ক্ষুধার্ত মানুষগুলো হুমড়ি খেয়ে পড়ে। ভারত থেকে আসা পানির কারণে দেশে প্লাবন দেখা দিয়েছে। বানবাসী মানুষকে লাল সংকেত দেখিয়ে ঘরবাড়ি ছাড়তে বলা হয়েছে। তারপরও সরকার বলে দিল্লি তাদের পরম বন্ধু। দিল্লীর কাছ থেকে পরামর্শ ও কৌশল শিখতে চায় আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা। এ সরকারকেও জনগণ একদিন লাল সংকেত দেখিয়ে নিরাপদে যেতে বলবে সেদিন আর বেশি দূরে নয়।
পীর সাহেব বলেন, সিলেট, সুনামগঞ্জের বন্যা কবলিত মানুষজন যখন হাহাকার করছে, তখন হেলিকপ্টার দিয়ে ঘুরে আর এসির নিচে বসে দুই-একটি মুখরোচক কথা বলেই সরকার দায় এড়াতে চাইছে। সিলেট এলাকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ব্যস্ত রয়েছেন বিদেশ সফর নিয়ে। তিনি গতকাল ১৩ দিনের লম্বা সফরে দেশ ত্যাগ করেছেন। এতেই বুঝা যায়, এ সরকার কখনো মানুষের কল্যাণে কাজ করেনি। দুর্ভোগে থাকা মানুষদের সাথে সবসময় তামাশা করে যাচ্ছে।

পীর সাহেব আরো বলেন, জনবিচ্ছিন্ন ও নির্বাসিত এ সরকার দিশেহারা হয়ে পড়েছে। মানুষ এখন সোচ্চার হচ্ছে। সরকারের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার কারণে দেশের মানুষ অতিষ্ঠ। আওয়ামী লীগ সরসময় প্রচার করে দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব কিন্তু কুমিল্লায় একজন সংসদ সদস্যকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি এই সরকারের নির্বাচন কমিশন। কীভাবে তিনি ৩০০ আসনের প্রার্থী নিয়ন্ত্রণ করবেন? এটা ধোকাবাজি ছাড়া আর কিছুই নয়।

ভারতে রাসূল (সা.)’র অবমাননা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতে কটাক্ষ করা হলো। কিন্তু সংসদে একটি নিন্দা প্রস্তাব হলো না। আওয়ামী সরকার হোক বিএনপি হোক, তারা কেউই রাসূল (সা.)-কে অবমাননার বিরুদ্ধে মুখ খুলেনি। আওয়ামী লীগ ভারতের গোলামী করে ক্ষমতায় থাকতে চাইছে। আর বিএনপি ভারতে গোলামী করে ক্ষমতায় যেতে চাইছে। তারা কেউই ইসলামের বন্ধু নয়। এদেশে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কোন বিকল্প নেই।

পীর সাহেব চরমোনাই সুনামগঞ্জের গোবিন্দগঞ্জ ও সিলেটের লামাকাজী, হরিপুর এলাকার বন্যা কবলিত এলাকায় দোয়া মাহফিলে শরিক হয়ে অসহায় দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক প্রফেসর ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ মাওলানা মাহমুদুল হাসান, সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি দেলওয়ার হোসেন সাকি, ঢাকা মহানগনগর উত্তরের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মো. আনোয়ার হোসেন, মুফতি ওয়ালীউল্লাহ কাসেমী, প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps