বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

সারা বাংলার খবর

চরভদ্রাসনে গৃহবধূর হাত-মুখ বেধেঁ স্বর্ণালঙ্কার লুট

ফরিদপুর জেলা সংবাদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০২২, ৫:৩০ পিএম

চরভদ্রাসন উপজেলায় এক প্রবাসীর স্ত্রীর হাত-মুখ বেঁধে স্বর্ণালংকার ও নগদ অর্থ লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।


রবিবার (২৬ জুন) দুপুরে চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।


ওসি জানায়, শনিবার (২৫ জুন) বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মাথাভাঙ্গা গ্রামের মৃত আনু মোল্লার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূর নাম রেহেনা পারভিন ময়না (৩০)। সে ওই গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী আব্দুল কাদের মোল্লার স্ত্রী।


স্থানীয়রা জানান, “ শনিবার বিকাল ৩টার দিকে ময়নার শ্বাশুরি ছোট নাতনি নুসরাতকে (৬) বাড়ি থেকে একটু অদূরে প্রাইভেট পড়াতে নিয়ে যায়।কিছু সময় পরে বৃষ্টি শুরু হয়। সে সময় গৃহবধূ বাড়িতে একা ছিল। হঠাৎ এক লোক এসে দরজা ধাক্কা দিলে ময়না দরজা খুলে দেয়ে। লোকটি ময়নার শ্বাশুরি কোথায় গেছে জিজ্ঞাসা করে পানি খাওয়ার কথা বলে।গৃহবধূ লোকটিকে বসতে বলে পানি আনতে যায়। হঠাৎ কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই লোকটি ময়নার চুল ধরে খুটির সাথে আঘাত করে ; এসময় ময়না জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। জ্ঞান ফিরে সে তার হাত-পা ও মুখ বাধাঁ অবস্থায় খাটের নিচে নিজেকে দেখেতে পায়।

এ সময় গৃহবধূর সাথে থাকা এক জোড়া কানের দুল,একটি স্বর্ণের চেইন, আলমারিতে থাকা তার শ্বাশুরি ছমিরণ বেগমের হাতের বালাসহ চার ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ ৭হাজার টাকা লুটে নিয়ে পালিয়ে যায় ওই দুর্বৃত্ত।


খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানজিলা কবির ত্রপা ও চরভদ্রাসন থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়ারুল ইসলাম ভুক্তভোগীর বাড়ি পরিদর্শন করেছেন।


এ বিষয়ে চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ঘটনার সাথে অন্য কোন বিষয় জড়িত থাকলে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন