বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

প্রতারণার অভিযোগ নির্মাতা প্রেরণা অরোরার বিরুদ্ধে

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২২, ১২:১৩ এএম

একের পর এক আর্থিক প্রতারণা জালে জড়াচ্ছেন বলিউডের একাধিক ব্যক্তিত্বরা। এবার আর্থিক প্রতারণার অভিযোগে জড়ালেন চলচ্চিত্র প্রযোজক প্রেরণা অরোরা। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিচালক প্রেরণা অরোরার বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের মামলা দায়ের করেছে। অক্ষয় কুমার-অভিনীত ‘টয়লেট এক প্রেম কথা’ এবং ‘প্যাড ম্যান’-এর মতো একাধিক চলচ্চিত্রের নির্মাতা হিসেবে পরিচিত প্রেরণা। এছাড়াও তিনি সারা আলি খান-অভিনীত কেদারনাথ, রুস্তম, ফান্নে খান এবং পরীর মতো একাধিক চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন।
সূত্রের খবর, প্রেরণার বিরুদ্ধে প্রায় ৩১ কোটি টাকার জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে। বুধবার ইডির অফিসে প্রেরণাকে তলব করা হয়েছিল। কিন্তু ইডি-র সামনে হাজির হন নি নির্মাতা। রিপোর্ট অনুসারে, পরিচালকের তরফ থেকে তাঁর আইনজীবী ইডি অফিসে হাজিরা দেন। পরিচালকের অনুপস্থিতির কারণ হিসেবে পরিচালকের আইনজীবী ইডি কর্মকর্তাদের জানান যে, প্রেরণা বর্তমানে অফিসিয়াল কাজে শহরের বাইরে রয়েছেন। তাই হাজির হতে পারেননি। বুধবার, একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বলিউড প্রযোজক প্রেরণা অরোরার বিরুদ্ধে প্রায় ৩১ কোটি টাকা আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। ইডি তাঁকে আজ তলব করলেও তিনি মুম্বাইতে না থাকায় দফতরে হাজির হতে পারেননি। তাঁর আইনজীবী ইডির অফিসে পৌঁছে পরিচালকের হয়ে আরও সময় চেয়েছেন। জানা গিয়েছে, এর আগে অর্থাৎ ২০১৮ সালের শুরুর দিকেও, অর্থনৈতিক অপরাধ শাখার কর্মকর্তারা ৩১.৬ কোটি টাকা আর্থিক প্রতারণার অভিযোগে ক্রিআর্জ এন্টারটেইনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেডের তৎকালীন পরিচালক প্রেরণাকে গ্রেফতার করেছিলেন।
এমনকী তাঁকে আইপিসির ৪২০ (প্রতারণা) এবং ১২০ ই (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র) ধারার অধীনে অভিযুক্ত করা হয়েছিল। একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রেরণা এবং ক্রিয়ার সহ-মালিক অর্জুন এন কাপুর এবং প্রতিমা অরোরা, বাসুকে প্যাডম্যান এবং কেদারনাথ চলচ্চিত্রের জন্য প্রচুর অর্থ প্রদানের জন্য প্ররোচিত করেছিলেন। এমনকী তাঁরা অন্যান্য আর্থিক সংস্থার কাছ থেকেও অনেক অর্থ নিয়েছে। কিন্তু এই সংস্থাটি দিনের পর দিন তাঁদের এহেন সত্যটি গোপন করেছে এবং পরে প্রতিশ্রুতি মত তাঁরা সেই টাকাও ফেরত দেয়নি, যার ফলে বাসু ভগনানির প্রায় ৩১.৬ কোটি টাকা অন্যায়ভাবে ক্ষতি হয়েছে। এরপরেই পূজা ফিল্মসের প্রোডাকশন ম্যানেজার নাগেশ বৈদিকর ফিল্ম প্রযোজক বাসু ভগনানির তরফ থেকে ঊঙড-তে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন