শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ১১ শ্রাবন ১৪৩১, ১৯ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

হুমায়ূন আহমেদের ছবি আত্মসাতের মামলায় সমন জারি

বিনোদন রিপোর্ট: | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২:০০ এএম

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ চিত্রকর্মেও সিদ্ধহস্ত ছিলেন। এটি ছিল তার শখের কাজ। মাঝে মাঝেই তিনি তার আনন্দের জন্য ছবি আঁকতেন। এভাবে অনেক ছবি এঁকেছেন। ২০১২ সালে ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য আমেরিকার নিউইয়র্কের জ্যামাইকায় গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে ছেলে নিষাদকে নিয়ে বেশকিছু ছবি এঁকেছিলেন। ওই সময় তার সাথে রুমা চৌধুরী ও তার সাবেক স্বামী পুস্তক ব্যবসায়ী বিশ্বজিৎ সাহার ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। তারা তার আঁকা ছবি নিয়ে একটি প্রদর্শনী আয়োজনের প্রস্তাব করেন। প্রস্তাবে রাজী হয়ে হুমায়ূন আহমেদ তার আঁকা ২৪টি ছবি তাদের দেন। শর্ত ছিল প্রদর্শনী শেষে তারা ছবিগুলো তার কাছে ফেরত দেবেন। প্রদর্শনীর দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে রুমা ও বিশ্বজিতের উদ্দেশ্য ছিল ছবিগুলো বিক্রি করে কমিশন লাভ করা। বারবার হুমায়ূন আহমেদকে প্রস্তাব দিলেও তিনি তাতে রাজী হননি। তিনি ¯পষ্ট জানিয়ে দেন, ছবিগুলো তিনি এঁকেছেন তার নিজের এবং পুত্র নিষাদের আনন্দের জন্য। বিক্রি করে অর্থ লাভের জন্য নয়। এসময় রুমা চৌধুরী গুজব রটান প্রদর্শনীর ২৪টি ছবির মধ্যে চারটি ছবি হারিয়ে গেছে। হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুর পর তার স্ত্রী শাওন রুমা চৌধুরী ও বিশ্বজিৎ সাহার কাছে ছবিগুলো ফেরত চান। বারবার চাওয়া সত্ত্বেও তারা ছবিগুলো ফেরত দিতে টালবাহানা শুরু করেন। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে তৎকালীন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এবং বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ব্যক্তির সহায়তায় তারা ২০টি ছবি ফেরত দেন হুমায়ূন আহমেদের মা আয়েশা ফয়েজের জিম্মায়। তবে চারটি ছবি আর পাওয়া যায়নি।২০২১ সালের ২৯ জুন আদালতে মামলা করেছিলেন মেহের আফরোজ শাওন। আদালত পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। সম্প্রতি ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে মর্মে আদালতে মামলার তদন্ত সংস্থা পিবিআই প্রতিবেদন দাখিল করে। চিত্রকর্ম আত্মসাতের অভিযোগে করা মামলায় রুমা চৌধুরী ও তার বর্তমান স্বামী মঞ্জুরুল আজিম পলাশকে আদালতে হাজির হতে নির্দেশ (সমন জারি) দিয়েছেন আদালত। গত রোববার ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন এ মামলার পুলিশ প্রতিবেদন আমলে নিয়ে তাদেরকে আগামী ২৫ অক্টোবর আদালতে হাজির হতে সমন জারি করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন