বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯, ১৭ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

সারা বাংলার খবর

শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে সুদূরপ্রসারী ষড়যন্ত্র চলছে জাতীয় প্রেসক্লাবে মাওলানা হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ২:২৬ পিএম | আপডেট : ৩:১২ পিএম, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২

মাওলানা হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী বলেছেন, দেশের শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে এক সুদূরপ্রসারী ষঢ়যন্ত্র চলছে। মাদরাসা শিক্ষাকে গলা টিপে হত্যার পাশাপাশি জাতীয় শিক্ষাকে নাস্তিক্যবাদী শিক্ষায় পরিণত করার অপপ্রয়াস অব্যাহত রয়েছে। বর্তমান সরকার শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়ন বিশেষ করে মাদরাসা শিক্ষার উন্নয়নে যেসকল যুগান্তকারী পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করেছে সেগুলোর সকল অর্জনকে ম্লান করে দিতে একটি চক্র উঠে পড়ে লেগেছে। এমনি মুহূর্তে স্বকীয়তা রক্ষার স্বার্থে মাদরাসার জন্য স্বতন্ত্র শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন এবং দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংখ্যাগরিষ্ট মানুষের বিশ্বাস, মূল্যবোধ ও সংস্কৃতির আলোকে জাতীয় পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন ও পরিমার্জন করা অত্যাবশ্যকীয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

জাতীয় প্রসক্লাবে মতবিনিময় সভায় সোমবার দিনে এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, সরকারী সার্কুলার অনুযায়ী ২০২৩ সাল থেকে সারাদেশে নতুন শিক্ষাক্রমের আলোকে ৬৪ ও ৭ম শ্রেণিতে স্কুল ও মাদরাসায় অভিন্ন পাঠ্যপুস্তক আসছে। নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী মাধ্যমিক স্তরে পঠিতব্য দশটি বিষয় হলো, বাংলা, ইংরেজি, ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান, গণিত, শিল্প ও সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য সুরক্ষা, জীবন ও জীবিকা, ডিজিটাল প্রযুক্তি, বিজ্ঞান ও ধর্মশিক্ষা। এ বিষয়গুলো যেমন স্কুলে পাঠদান করা হবে তেমনি সমানভাবে মাদরাসায়ও পাঠদান করা হবে। নতুন শিক্ষাক্রমের পাইলটিং কার্যক্রম ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। ২০২২ শিক্ষাবর্ষে ৬২টি প্রতিষ্ঠানে পাইলটিং কার্যক্রমের জন্য ৬ষ্ট শ্রেণিতে যে পাঠ্যপুস্তক প্রদান করা হয়েছে এগুলোর বিভিন্ন বিষয় এ দেশের সংখ্যাগরিষ্ট মানুষের বিশ্বাস, আদর্শ, ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সাথে বিশেষত মাদরাসা শিক্ষার সাথে। সাংঘর্ষিক। সচেতন আলিম-উলামা ও মাদরাসার শিক্ষকমণ্ডলী এসকল পাঠ্যপুস্তক দেখে হতবাক। শুধু মাদরাসা সংশ্লিষ্টরাই কেন, এ সকল পাঠ্যপুস্তক পড়লে সচেতন যে কোনো মুসলমানই হতাশ ও বিক্ষুব্ধ হবেন। এগুলো মাদরাসা তো দূরে, এ দেশের স্কুলেও পাঠদান করার উপযোগী নয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Rezaul Karim ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ৬:২৩ পিএম says : 0
ঠিক বলেছেন
Total Reply(0)
Rezaul ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ৬:২৬ পিএম says : 0
বর্তমানে শিক্ষাব্যবস্থাকে পুরোপুরি ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র চলছে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে নাস্তিকরা না সরলে এ ব্যাপারে সমাধান কার্যকর হবে না
Total Reply(0)
Km Al Hossain ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৫৬ পিএম says : 0
তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এই জালিমদের
Total Reply(0)
Kobitar Khata ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৫৬ পিএম says : 0
/আমার মনে হয় বাংলাদেশ বিনাশী কোনো জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্র জাতীর শিক্ষার মেরুদণ্ড ভেঙ্গে দেওয়ার জন্য সুদূরপ্রসারী ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই শিক্ষায় এমন গোঁজামিল করছে ।সরকার এখানে ক্রিড়ানক মাত্র
Total Reply(0)
মোঃ জাকারিয়া ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৫৭ পিএম says : 0
আমারও তাই মনে হয়।
Total Reply(0)
Ahmed Shorif ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৫৭ পিএম says : 0
এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা সময়ের দাবি।
Total Reply(0)
Muhammad Masud ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৫৭ পিএম says : 0
ইনশাআল্লাহ সকল কিছু মোকাবেলার জন্যে ডাক আসলে প্রস্তুত আছি।
Total Reply(0)
কামাল মিয়া ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ৮:০৯ পিএম says : 0
স্বতন্ত্র শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে আর কত বছর চালাবেন এবার একটু আধুনিকতার দিকে এগিয়ে আসুন
Total Reply(0)
আব্দুল মোকাররম ৫ ডিসেম্বর, ২০২২, ৮:১২ পিএম says : 0
It's a great sorrow and mystery because what has happened with the madrasa education during this period of a l government. Deeply shocked to hear what they have planned to execute and destroy the madrasa education system like general education as well. I aaj the government to fulfill all the demands immediately or else face the consequences.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন