বুধবার , ০৪ অক্টোবর ২০২৩, ১৯ আশ্বিন ১৪৩০, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫ হিজরী

শিক্ষাঙ্গন

সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি

প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০১৬, ১২:০০ এএম

দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা বা সার্কের সদস্য দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের শিক্ষা এবং গবেষণার সুযোগ করে দিতে নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি বা দক্ষিণ এশীয় বিশ্ববিদ্যালয়। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু ২০১০ সালে। সংক্ষেপে এটি ‘সার্ক বিশ্ববিদ্যালয়’ নামেই পরিচিত।
এই বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে ৬টি বিভাগে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ২০১১ সাল থেকে ব্যাচেলর পর্যায়ে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। ২০১৪ সালের মধ্যে বর্তমানের ছয়টি বিষয় ছাড়াও আরো ১৪টি নতুন বিষয়ে এখানে পড়ার সুযোগ পাবেন শিক্ষার্থীরা। বাংলাদেশ থেকে ২৭ জন শিক্ষার্থী এখানে পড়ছেন।
চলতি শিক্ষাবর্ষে যে কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে : এম এ (ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ), এমএসসি (কম্পিউটার সাইন্স), এমএসসি (বায়োটেকনোলজি, এমএ (সসোলোজি), এমএ (ইন্টারন্যাশনাল রিজিওন), এমএ (ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজ) এবং এলএলএম।
আসন বণ্টন : সার্কভুক্ত আটটি দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯০ শতাংশ আসন বরাদ্দ রয়েছে। সদস্য দেশগুলোর মধ্যে প্রতিটি দেশ থেকে সর্বনিম্ন ৪ শতাংশ থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারবে। পূর্ণাঙ্গভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রম চালু হলে গবেষণা পর্যায়ে ৭০৫ জন, মাস্টার্স পর্যায়ে ২ হাজার ৯৫ জন এবং ব্যাচেলর পর্যায়ের ২শ আসন থাকবে।
খরচ যেমন হবে : সার্ক ও সার্কের বাইরের দেশগুলোর জন্য টিউশন ফিসহ অন্যান্য খরচও আলাদাভাবে নির্ধারণ করা হয়েছে। ভর্তি ফি সার্কভুক্ত দেশসমূহের শিক্ষার্থীদের জন্য ১০০ ডলার (অফেরতযোগ্য), টিউশন ফি ৪৪০ ডলার (প্রতি সেমিস্টার), নিরাপত্তা তহবিল ১০০ ডলার (ফেরতযোগ্য)। তবে যে সমস্ত শিক্ষার্থী আবাসিক সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করতে চায় তাদের প্রতি সেমিস্টারে আরও ৫শ ডলার টিউশন ফি দিতে হবে।
ভর্তি পরীক্ষা : ভর্তি পরীক্ষায় মোট ১০০ মার্কসের প্রশ্ন করা হয়। সময় ৩ ঘণ্টা। ১০০ মার্কস ভাগ করা থাকে ২ ভাগে - প্রথম ভাগে থাকে ৫০ মার্কসের অবজেক্টিভ, যেখানে আবার ২৫ - ২৫ করে দুটি বিভাগ। একটি দক্ষিণ এশিয়া সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান আর অপরটি বিষয়ভিত্তিক। আর বাকি ৫০ মার্কস হল লিখিত যেখানে ৪/৫টি বর্ণনামূলক প্রশ্নের মধ্য থেকে মাত্র ২টির উত্তর দিতে হয়। একেকটি উত্তর ১২০০/১৫০০ শব্দের বেশি হওয়া যাবে না। আর লিখিত পরীক্ষায় প্রশ্নগুলো ফ্রি-হ্যান্ডরাইটিং টাইপ আবার বিষয়ভিত্তিকও হতে পারে। ভর্তি পরীক্ষা একই দিনে ৮টি সার্ক দেশে লোকাল টাইম অনুযায়ী একই প্রশ্নের মাধ্যমে নেয়া হয়। বাংলাদেশে পরীক্ষা সেন্টার দুটি। একটি ঢাকার শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অপরটি চিটাগাং। ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে প্রতিটি দেশ থেকে বিষয় অনুযায়ী চান্সপ্রাপ্তদের এবং অপেক্ষমান তালিকা প্রকাশ করা হয়।
এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে এবং ভর্তির জন্য আবেদন করতে ভিজিট করুন যঃঃঢ়://ংধঁ.রহঃ/ধফসরংংরড়হং/ধফসরংংরড়হ-হড়ঃরপব-২০১৬.যঃসষ।
ষ জাকারিয়া হাসান

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন