ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মন্ত্রীর পদমর্যাদা পেলেন আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ

| প্রকাশের সময় : ১০ মার্চ, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বর্তমান সরকারের শেষ মেয়াদে পূর্ন মন্ত্রীর পদমর্যাদা পেলেন বঙ্গবন্ধুর বড় বোনের ছেলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্’এমপি।
গতকাল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমের স্বাক্ষরে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এতে বলা হয়, সরকার এই মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে যে, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক জাতীয় কমিটি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মধ্যে সম্পাদিত চুক্তি বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া পরিবীক্ষণ করার লক্ষ্যে গঠিত চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপি এ পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালীন মন্ত্রীর পদমর্যাদা, বেতন ভাতা ও আনুষঙ্গিক অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পাবেন। এটি অবিলম্বে কার্যকর হবে।
জানা গেছে, দশম জাতীয় সংসদের স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্’এমপি। আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্ ১৯৪৪ সালের ১০ ডিসেম্বর বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার সেরাল গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত সেরনিয়াবাত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত বঙ্গবন্ধু সরকারের কৃষি, সেচ ও পানিসম্পদ, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজসম্পদ এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ছিলেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের সাথে আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্’র পিতা তৎকালীন মন্ত্রী শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত, ভাই আরিফ সেরনিয়াবাত, বোন আরজুমনি, বেবী সেরনিয়াবাত, পুত্র সুকান্ত বাবু ঘাতকের নির্মম বুলেটে নিহত হন। আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ প্রানে বেঁচে যান। আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ ্১৯৯১ সালে ৫ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১২১ বরিশাল-১ (গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৯৬ সালে ৭ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১২১ বরিশাল-১ (গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া) আসন থেকে দ্বিতীয় বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নিযুক্ত হন। ২০১৪ সালের ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি তৃতীয় বারের মত ১১৯ বরিশাল-১ (গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এর নেতৃত্বে ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর পার্বত্য শান্তি চুক্তি সম্পাদিত হয়। ২০১৮ সালের ১৮ জানুয়ারি তিনি পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক পদে নিযুক্ত হন। এরই ধারাবাহিকতায় সরকার তাঁকে মন্ত্রীর পদমর্যাদা প্রদান করেন। এই দায়িত্বের পাশাপাশি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের ১১৯ বরিশাল-১ আসনের সংসদ সদস্য, ১০ম জাতীয় সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) এর সদস্য এবং বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
লাভলু ১০ মার্চ, ২০১৮, ৫:৩৭ এএম says : 0
দেখা যাক তিনি দেশের জন্য কি করতে পারেন।
Total Reply(0)
তামিম ১০ মার্চ, ২০১৮, ৪:৪৭ পিএম says : 1
সবই তো নিজেরা নিজেরাই
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন