ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

সূচকের উত্থান : ঈদের ছুটিতে পুঁজিবাজার

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

ঈদের আগের শেষ কার্যদিবস গতকাল সোমবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্যসূচক বেড়েছে। এ নিয়ে টানা চার কার্যদিবস মূল্যসূচক বাড়লো। ফলে ঈদের আগে কিছুটা হলেও স্বস্তি পেয়েছেন শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীরা। আজ মঙ্গলবার থেকে টানা তিন কার্যদিবস লেনদেন বন্ধ থাকার পর ২৬ আগস্ট থেকে শেয়ারবাজারে আবারও লেনদেন শুরু হবে।
ঈদের আগের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে সবকটি মূল্যসূচক বাড়লেও শুরুতে সবকটি সূচক নিম্নমুখী ছিল। কিন্তু শেষ ঘণ্টার লেনদেনে প্রায় সবকটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বাড়ায় ঊর্ধ্বমুখীতা ফিরে পায় সবকটি সূচক।
এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ১৯৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ৯৭টি। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।
এদিকে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩২ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৫৭১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।
অপর দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৯ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৯৪৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৫৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।
বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ায় ডিএসইর বাজার মূলধন বেড়েছে দুই হাজার কোটি টাকারও বেশি। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৯২ হাজার ১৪০ কোটি টাকা। যা আগের কার্যদিবস শেষে ছিল ৩ লাখ ৮৯ হাজার ৮৫০ কোটি টাকা।
বাজার মূলধন ও মূল্যসূচকের বড় উত্থান হলেও বাজারটিতে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা কমেছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৪৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার। আগের দিন লেনদেন হয় ৫৬০ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ১১৫ কোটি ২৫ লাখ টাকা।
টাকার অংকে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের শেয়ার। এদিন কোম্পানিটির মোট ১৮ কোটি ৪১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বিবিএস কেবলসের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৪ কোটি ৫৪ লাখ টাকার। ১৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে দি সিটি ব্যাংক।
লেনদেনে এরপর রয়েছে- ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স, ঢাকা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এবং সায়হাম টেক্সটাইল।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ৬৪ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৩৬২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার। লেনদেন হওয়া ২৩৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৪৯টির শেয়ারের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৬৭টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টির শেয়ারের দাম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন