বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

যৌন নিপীড়নের দায়ে শাবি শিক্ষককে চাকুরিচ্যুত, অভিযোগকারী ছাত্রীকে বহিস্কার

শাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:৪৮ পিএম

ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের দায়ে চাকরি হারালেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক প্লাবন চন্দ্র সাহা। শনিবার ভিসি প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২১১তম সিন্ডিকেট সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেন একাধিক সিন্ডিকেট সদস্য।
জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের এক শিক্ষার্থীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত সাপেক্ষে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় ২১১তম সিন্ডিকেট সভায় প্লাবন চন্দ্র সাহাকে চাকুরীচ্যুত করা হয়। এছাড়া ঘটনার সাথে অভিযোগকারী ছাত্রীরও সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়ায় সেই ছাত্রীকেও দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়।
এদিকে অভিযোগকারী ছাত্রীর দুই বছরের বহিস্কারের ঘটনা নিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন মহলে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠেছে। ভবিষ্যতে কোন ছাত্রী যৌন নিপীড়নের শিকার হলে অভিযোগ করতে সাহস করবে না বলে মনে করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এবিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান এবং যৌন হয়রানি ও নিপীড়ন সেলের সভাপতি প্রফেসর ড. নাজিয়া চৌধুরী বলেন, ছাত্রীকে দেয়া এই শাস্তি অপরাধের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। এটা সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত। তাকে সর্বোচ্চ সতর্ক করা যেত বলে আমি মনে করি।

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন বলেন, সংক্ষুব্ধ যে কেউ সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য আপিল করতে পারবেন। তবে যৌন নিপীড়নের শিকার ওই ছাত্রীর ব্যাপারে এখনো চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি বলে জানান তিনি।

এছাড়া স্বাক্ষর জালিয়াতির কারণে পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. মাসুদ সরকার আগামী ৪ বছরের জন্য প্রমোশনের জন্য আবেদন করতে পারবেন না বলে সিন্ডিকেটে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। একই সিন্ডিকেটে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ড্রাইভার মো. জিলাল উদ্দিন ও পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের এমএলএসএস নজরুল ইসলামকেও চাকুরীচ্যুত করা হয়।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
রুবেল ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৪:৩৪ পিএম says : 0
ভবিষ্যতে যেন কোন ছাত্রী যৌন নিপীড়নের শিকার হলে/নির্যাতনের শিকার হইলেও অভিযোগ করতে সাহস না পায় এই কারনেই ঐ ভিকটিম এর উপর এই নির্মম অবিচার করা হইছে। ছি,ছি,ছি,,এই লজ্জা কার একটি স্বাধীন দেশের এমন অমানবিক বিচার ছি,।।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন