ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

মহানগর

বিএনপি কার্যালয় থেকে ১০জন বের করে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ ছাত্রনেতারা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ জুন, ২০১৯, ৬:৩৭ পিএম

বয়সসীমা নির্ধারন না করে ধারাবাহিক কমিটির দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে ছাত্রদলের বিগত কমিটির নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল ফটকে তালা ঝুঁলিয়ে দেন। আজ মঙ্গলবার সকাল সোয়া ১১ টায় রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ আন্দোলন শুরু করেন সাবেক ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এর আগে সকাল ১০ টা থেকে সাবেক ছাত্র নেতারা নয়াপল্টনের সামনে জড়ো হতে দেখা যায়। দুপুর পর্যন্ত তারা কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করে।

দুপুরের পর তালা খুলে ছাত্রদলের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির নেতারা কার্যালয়ের ভেতরে প্রবেশ করেন। এসময় আগে থেকে ভেতরে থাকা ছাত্রদল ঢাকা মহানগর রূর্ব শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম নয়নকে বেধড়ক মারধর করে তৃতীয় তলা থেকে নামিয়ে সিএসজিতে উঠিয়ে দেয়। বিকাল ৩টা ৫৫ মিনিটে কার্যালয়ের তালা খুলে ভেতরে ঢুকেন বিক্ষুব্ধ নেতারা। এদের মধ্যে ছিলেন বিলুপ্ত কমিটির আজমল হোসেন পাইলট, আসাদুজ্জামান, ওমর ফারুক মুন্না, মফিজুর রহমান আশিক, আবুল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, বায়েজিদ আরেফিন প্রমূখ নেতৃত্বে। এই সময়ে বিএনপির দপ্তরেরর দলিল উদ্দিনও কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যেতে দেখা যায়।

তালা খোলার পর বিক্ষুব্ধরা ভবনের বিদ্যু সংযোগ চালু করে। বেলা সাড়ে ১২টা থেকে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে দিয়েছিল বিক্ষুব্ধরা।

বিক্ষুব্ধ নেতারা বলেন, ‘‘ আমরা ৯/১০ জনকে বের করে দিয়েছি। আমরা দীর্ঘদিন ছাত্র দল করি, কোনো পদবী নাই। এতো দিন থেকেছি কিন্তু যাদেরকে বের করে দেয়া হয়েছে তাদেরকে আমরা চিনি না। তারা টোকাই ও বহিরাগত। বিক্ষুব্ধরা খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের পক্ষে শ্লোগান দিতে থাকে। তবে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে উদ্দেশ্য করে নানা রকম কটূ কথাও বলেন। এসময় তিনি তৃতীয় তলায় দলের অসুস্থ অবস্থায় বিছানায় শুয়ে ছিলেন। তার সাথে দুইজন অফিস কর্মী ও চিকিৎসকও ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন