ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

কলাপাড়া থানায় মামলা দায়ের ; ৪টি ল্যাপটপ উদ্ধার ১৪ শ্রমিক গ্রেফতার

কলাপাড়ায় বাংলাদেশি ও চীনা শ্রমিক সংঘর্ষ

পটুয়াখালী জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

দ্বিতীয় দিনের মতো কার্যক্রম বন্ধ

 দেশি-বিদেশি দুই শ্রমিক নিহতের ঘটনায় গতকাল দ্বিতীয় দিনের মতো পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সকল ধরনের কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতরে বাইরে গতকালও বিপুল পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন ছিল। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নিয়োজিত রয়েছে ৮ প্লাটুন বিজিবি।
কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষের একটি মামলা কলাপাড়া থানায় ডায়েরিভুক্ত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ৪টি ল্যাপটপ উদ্ধারসহ ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার বাদী ওয়াংলি পিং।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভিতর থেকে বাংলাদেশি শ্রমিক সেলিম মোবাইলে জানান, বুধবার সভার সিদ্ধান্ত মতে তাদের জানানো হয়েছিল, বৃহস্পতিবার থেকে কাজ শুরু হবে, কিন্তু শুরু হয়নি। এদিকে গতকাল দিনে ও রাতে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পিছনের দিকের একটি অংশের দেয়াল টপকে আতঙ্কিত শ্রমিকদের অনেকেই চলে গেছেন বলে তিনি জানান। বর্তমানে বাংলাদেশি শ্রমিকদের চার হাজারের মধ্যে প্রায় ১ হাজার শ্রমিক ভিতরে অবস্থান করছেন।
এদিকে কেন্দ্রের সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার শাহমনি জিকো জানান, গত মঙ্গলবারের ঘটনার পর থেকে উভয় দেশের শ্রমিকদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। তারা উভয় পক্ষকেই স্বাভাবিক কাজে ফিরিয়ে আনার পরিবেশ তৈরি করতে জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে তিনি মনে করেন, এখানে একটি স্বার্থান্বেষী মহলের উস্কানিতে এ বিশৃঙ্খল ঘটনা ঘটেছে। তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিয়মিত কোন শ্রমিক এ ঘটনা ঘটাতে পারে না বলে তিনি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন।
তিনি আরো বলেন, মঙ্গলবার রাতে বাহির থেকে হাজার লোক ভিতরে প্রবেশ করে চীনাদের উপর হামলা চালায়। ভিতরে প্রবেশ করে ব্যাপক লুটপাট ও ভাঙচুর চালায়। এ সময় তারা অতি মূল্যবান এবং গুরুত্বপূর্ণ ১২টি ল্যাপটপ ও ১১টি ডেস্কটপসহ অনেক মূল্যবান ব্যবহার্য সামগ্রী লুটপাট করে নিয়ে যায়।
জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানিয়েছেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে আহŸায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর বাইরে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি এবং পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ আরো একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। গঠিত তদন্ত কমিটিকে আগামী সাত কর্ম দিবসের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান জানান, তাকে সভাপতি করে তিন সদস্য বিশিষ্ট পুলিশের তদন্ত কমিটি গতকাল থেকে তাদের তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে। ইতোমধ্যে তদন্তে অনেক তথ্য পাওয়া গেছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, ৫ কর্মদিবসের মধ্যে তারা রিপোর্ট প্রদান করবেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন