ঢাকা, বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মহানবী (স:) বিরুদ্ধে বিতর্কিত মন্তব্যকারী হিন্দু নেতা খুন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১১:৫০ এএম

ভারতের লক্ষ্নৌতে মুসলিমদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (স.)’র বিরুদ্ধে কুৎসা রটনাকারী কুখ্যাত হিন্দু নেতাকে প্রকাশ্যে গুলি করে ও গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সকালে ভয়াবহ এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজ্যের রাজধানী লক্ষ্নৌতে। নিহত ওই চরমপন্থি হিন্দু নেতার নাম কমলেশ তিওয়ারি। তিনি হিন্দু সমাজ পার্টির সভাপতি ও হিন্দু মহাসভার সাবেক নেতা।

তার নিহত হওয়ার সংবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে গোঁটা এলাকা। কয়েক জায়গায় ভাঙচুর চালিয়েছে কমলেশ তিওয়ারির সমর্থকরা। ল²ৌয়ের আমিনাবাদে জোর করে দোকানপাঁট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অপরাধীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে শুক্রবার রাত অবধি চলছে বিক্ষোভ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে লক্ষ্নৌয়ের খুরশিদ বাগ অফিসে বসেছিলেন কমলেশ তিওয়ারি। সে সময় অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজন দুষ্কৃতিকারী তার অফিস আসে। প্রথমে তার সঙ্গে ভালভাবে কথা বলে অফিসে বসে চা খায়। পরে আচমকা ওই নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এরপর একটি ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার গলা কেটে এলাকা থেকে পালিয়ে যায়।

কমলেশের চিৎকারে ছুটে আসে আশপাশের লোকেরা। তারা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে কাছের একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে মৃত্যু হয় কমলেশের। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি দেশী পিস্তল ও কয়েকটি কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, হিন্দু সমাজ পার্টি তৈরি করার আগে হিন্দু মহাসভার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন নিহত ওই নেতা। ২০১৫ সালে মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রিয় নেতা মহানবী হজরত মুহম্মদ (স.)’র নামে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তৎকালীন অখিলেশ যাদবের সরকার তাকে জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় অভিযুক্ত করেছিলো। এরপর থেকে জেলেই ছিলেন তিনি। সম্প্রতি জামিন পেয়ে জেলের বাইরে আসেন। এলাহাবাদ হাইকোট তার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া জাতীয় নিরাপত্তা আইনের ধারাগুলিও খারিজ করে দেয়।

উল্লেখ্য, চলতি মাসে এ নিয়ে উত্তরপ্রদেশে হিন্দুত্ববাদী দলের চার নেতা খুন হলেন । গত ৮ অক্টোবর দেওবন্দে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল বিজেপি নেতা চৌধুরী যশপাল সিংকে। ১০ অক্টোবর বস্তিতে খুন হয়েছিলেন বিজেপি নেতা কবীর তিওয়ারি। ১৩ অক্টোবর খুন হন দেওবন্দের বিজেপি কাউন্সিলর ধারা সিং।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (12)
Md kamal uddin ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:১৭ পিএম says : 4
গুরুতর অপরাধের বিচার না হওয়া এবং জেলের বাহিরে থাকারকারণে হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছিলেন
Total Reply(0)
Md kamal uddin ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:১৭ পিএম says : 2
গুরুতর অপরাধের বিচার না হওয়া এবং জেলের বাহিরে থাকারকারণে হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছিলেন
Total Reply(0)
Md kamal uddin ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:১৭ পিএম says : 1
গুরুতর অপরাধের বিচার না হওয়া এবং জেলের বাহিরে থাকারকারণে হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছিলেন
Total Reply(0)
নবী বিদ্বেষীদের পরিনতি এরকমই হয়ে থাকে! ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:২৮ পিএম says : 2
খুব ভালো হয়েছে
Total Reply(0)
আবু আব্দুল্লাহ ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:৩৬ পিএম says : 4
AL HAMDULILLAH - GOOD NEWS
Total Reply(0)
Al-amin Hossain ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ২:২২ পিএম says : 3
ইয়া রব্বে কারিম আপনার এই বিশাল নিয়ামতের শুকরিয়া আমি কিভাবে করব , আপনি আমার অন্তর শিতল করেদিন প্রত্তেক মোমিন ভায়দের শহিদি তামান্না বারিয়ে দিন, আমিন,,,,
Total Reply(0)
আল- আমীন ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ২:২৩ পিএম says : 3
নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে নিয়ে উল্টোপাল্টা মন্তব্য না করার অনুরোধ রাখলাম
Total Reply(0)
Jalal ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:৪৭ এএম says : 2
Constitution ebong Islam 2 ta contradictory. Inqilaab eksathe 2ta bishoye kemne sroddhashil hoi??? Hoi islam dhoren na hoi charen.
Total Reply(0)
Yourchoice51 ২২ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:১৩ এএম says : 2
I personally do not support lynching; but this guy created so much hatred among people so here's the consequence....
Total Reply(0)
Pakistani premik ২৩ অক্টোবর, ২০১৯, ১:০০ এএম says : 1
Inquilab does not believe in what they wrote above i.e., দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন। Completely wrong statement.
Total Reply(0)
Zerin ২৩ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:৪৪ পিএম says : 2
Teach a good lesson
Total Reply(0)
ইমরান ২৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:১৩ পিএম says : 0
Congratulation, It is very good news
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন