রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৪ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

খেলাধুলা

‘সিংহের’ থাবায় ধরাশায়ী ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ মার্চ, ২০২৩, ১২:০০ এএম

ইন্দোর টেস্টে আরও এক দিন দাপট দেখালেন বোলাররা। প্রতিটি রানের জন্য লড়তে হল ব্যাটারদের। আরও এক দিন প্রতিটি সেশনে বদলে গেল খেলার চিত্র। প্রথমে উমেশ যাদব, রবিচন্দ্রন অশ্বিনের দাপটে অস্ট্রেলিয়ার লিড ৮৮ রানে আটকে রাখল ভারত। পরে স্বাগতিকদের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়ে গেল ১৬৩ রানে। আরও খারাপ পরিস্থিতি হতে পারত ভারতের। অর্ধশত করে দলকে চরম লজ্জার হাত থেকে বাঁচালেন চেতেশ্বর পুজারা। ইনিংসে ৮ উইকেট নিয়ে ভারতীয় ব্যাটিং মেরুদন্ড তছনছ করে দেন অজি স্পিনার নাথান লায়ন। তাতে চলমান বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফিতে আগের দুই টেস্টের মতো তৃতীয় টেস্টও আড়াই দিনেই শেষ হওয়ার পথে। তৃতীয় টেস্ট জিততে আজ দ্বিতীয় ইনিংসে ৭৬ রান করতে হবে স্টিভ স্মিথদের।
হোলকার স্টেডিয়ামে ৪ উইকেটে ১৫৬ রান নিয়ে দিন শুরু করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ক্রিজে ছিলেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব এবং ক্যামেরন গ্রিন। তবে তাদের কেউই ইনিংস বড় করতে পারেননি। আগের দিনের দলীয় সংগ্রহের সঙ্গে ৩২ রান যোগ হতেই আউট হন দুজন। ৭১তম ওভারে অশ্বিনের বলে শর্ট লেগে ধরা পড়েন ১৯ রান করা হ্যান্ডসকম্ব। পরের ওভারে উমেশ যাদবে বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পা দেন গ্রিন, সাজঘরে ফেরার আগে এই অলরাউন্ডারের সংগ্রহ ছিল ২১ রান। সফরকারীরা প্রথম ইনিংসে ১৫৪ থেকে ১৯৭ রানে পৌঁছাতে পেরেছে কোনো রকমে। তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে ১৮৬ থেকে ১৯৭- এই ১১ রানের মধ্যেই শেষ ৬ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। উইকেটগুলো সমানভাবে ভাগ করে নেন অশ্বিন এবং উমেশ যাদব। লিড পায় ৮৮ রানের।
এর আগে প্রথম ইনিংসে স্পিন বিষে নীল হওয়া ভারত দ্বিতীয় ইনিংসেও অস্ট্রেলিয়ার স্পিন আক্রমণের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে। এ যেন নিজেদের পাতা ফাঁদে নিজেরা ঘায়েল হওয়া। লায়ন একাই তুলে নিয়েছেন ৮ উইকেট। অঘোরে উইকেট খুইয়েছেন রোহিত-কোহলিরা। প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেছিলেন শুধু তিনে নামা চেতেশ্বর পুজারা। স্পিন বিষ সামলে করেছেন ৫৯ রান। তবে শেষবেলায় লায়নের বলে লেগ সিøপে স্টিভ স্মিথের অবিশ্বাস্য ক্যাচে প্রতিরোধ ভাঙে তারও।
দলীয় ১৫৫ রানে পুজারা আউট হওয়ার পর ভারতের গুঁটিয়ে যেতে বেশি সময় লাগেনি। দিনের শেষভাগে ৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৬৩ রানে থামে ভারত। সিরিজে টিকে থাকতে হলে অস্ট্রেলিয়ার সামনে লক্ষ্য এখন ৭৬ রান। অন্যদিকে এই ম্যাচ হারলেও ভারতের সামনে সুযোগ থাকবে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলার। সেক্ষেত্রে আগামী ৯ তারিখে শুরু হওয়া গুজরাট টেস্টে অবশ্যই জিততে হবে ভারতকে।

 

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন