ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঠাণ্ডার দাপট ঢাকা-বরিশালে

শৈত্যপ্রবাহ কমেছে উত্তর, দক্ষিণ-পশ্চিমে : ফরিদপুরে সর্বনিম্ন ১০.১ ডিগ্রি : দেশজুড়ে ঘন কুয়াশা

শফিউল আলম | প্রকাশের সময় : ২১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১:০৭ পিএম | আপডেট : ১:৩৫ পিএম, ২১ ডিসেম্বর, ২০১৯

উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আসা হিমেল কনকনে হাওয়ায় তীব্র ঠাণ্ডার দাপট আরও কিছুটা বেড়েছে রাজধানীসহ ঢাকা এবং বরিশাল বিভাগে। কুয়াশার সাথে ঠাণ্ডা বাতাসে কর্মমুখী সর্বস্তরের মানুষের কষ্ট ও ভোগান্তি বেড়ে গেছে। অসুস্থ মানুষদের দুর্ভোগও চরমে।
ঘন কুয়াশার কারণে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ থাকে। এরফলে ফ্লাইট শিডিউল এলোমেলো হয়ে গেছে।
এদিকে আজ শনিবার সকাল থেকে শৈত্যপ্রবাহের কামড় কমেছে দেশের উত্তরাঞ্চল এবং দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে। এসব অঞ্চলে আগের দুই তিন দিনের চেয়ে রাতের পারদ স্থানভেদে ২ থেকে ৪ ডিগ্রি পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে।
তবে ঘন কুয়াশা পড়ছে দেশের প্রায় সর্বত্র।
শীতে জবুথবু ঢাকা বিভাগের ফরিদপুরে আজ দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকার তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ এবং ১২.২ ডিগ্রি সে.। গোপালগঞ্জে ১০.৫ ডিগ্রি। বরিশালের তাপমাত্রা সর্বনিম্ন ১০.৪ ডিগ্রি সে.।
আবহাওয়া পূর্বাভাসে জানা গেছে, আজ সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। তবে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টায় সারাদেশে তাপমাত্রা বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে।
আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ সূত্র জানায়, শীতের ঘন কুয়াশার সঙ্গেই ধূলোবালির ব্যাপক দূষণ মিশে গেছে। এতে করে সূর্যের তাপ বা রোদের তেজ মাটির দিকে আসতে বাধা পাচ্ছে। তীব্র ঠাণ্ডার এটিও কারণ। এতে করে গত তিন চার দিনে ঠাণ্ডাজনিত রোগব্যাধির প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে।
আবহাওয়া বিভাগ জানায়, আগামীকাল রোববার থেকে তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি এবং শৈত্যপ্রবাহ পরিস্থিতির উন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন