ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ফিলিস্তিনে ইহুদি বসতি স্থাপনে অন্যতম অর্থদাতা চেলসি ফুটবল ক্লাবের মালিক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:৩৬ এএম

অধিকৃত ফিলিস্তিনিদের ভূখণ্ড দখল করে, স্থানীয়দের বাড়িগুলো গুড়িয়ে দিয়ে সেখানে অবৈধ ইহুদি বসতি নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। তবে এবার নতুন কিছু নথিপত্রে জানা গেছে, এসব অবৈধ বসতি স্থাপনের অন্যতম অর্থদাতা রুশ ধনকুবের এবং ইংলিশ ফুটবল ক্লাব চেলসি-র মালিক রোমান আব্রামোভিচ। তার কিছু প্রতিষ্ঠান এমন একটি ইসরায়েলি কোম্পানিকে ১০ কোটি ডলার দান করেছে- যারা দখলকৃত পূর্ব জেরুসালেমে ইহুদি বসতি স্থাপনের জন্য কাজ করে। বিবিসি-র আরবি বিভাগের এক অনুসন্ধানে উঠে এসেছে এমন তথ্য।

ফিলিস্তিনে অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপনে চেলসি-র মালিক রোমান আব্রামোভিচ যে অর্থ দিয়েছেন বাংলাদেশি মুদ্রায় তার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৮৫৪ কোটি টাকা। তবে আব্রামোভিচের একজন মুখপাত্র বিবিসি-কে জানিয়েছেন, গত ২০ বছরে ইসরায়েল ও ইহুদিদের জন্য তার মোট দানের পরিমাণ এর চেয়ে অন্তত পাঁচ গুণ বেশি।
ইসরাইল অধিকৃত পূর্ব জেরুসালেমে ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীদের একটি সংগঠনের নাম এলাদ। এর প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ১৯৮৬ সালে। তারা সেখানকার সিলওয়ান এলাকার নাম দিয়েছে 'সিটি অব ডেভিড'। তখন থেকে এ পর্যন্ত এই সিলওয়ানে প্রায় ৭৫টি বাড়িতে ইহুদি পরিবারের বসতি স্থাপন সম্পন্ন করেছে এলাদ।
এ প্রতিষ্ঠানটি আবার পর্যটনের ক্ষেত্রেও কাজ করে। সিটি অব ডেভিডের পুরাতাত্বিক আকর্ষণীয় স্থানগুলো দেখতে প্রতি বছর ১০ লাখেরও বেশি পর্যটক আসে। আর ওই পর্যটক আকর্ষণের স্থানগুলো পরিচালনা করে তারাই।

এলাদের সাবেক বিপণন পরিচালক হচ্ছেন শাহার শিলো। তিনি বিবিসিকে বলছেন, এলাদের কৌশলটা হলো, তারা সিটি অব ডেভিডে একটি ভিন্ন রাজনৈতিক বাস্তবতা সৃষ্টি করার জন্য পর্যটনকে ব্যবহার করছে।

এলাদ তার কাজের অর্থায়নের জন্য নির্ভর করে দাতাদের ওপর। ২০০৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত তারা দান হিসেবে যে অর্থ পেয়েছে - তার অর্ধেকই গেছে ব্রিটিশ ভার্জিন আইল্যান্ডের (বিভিআই) চারটি কোম্পানি থেকে। তবে এই কোম্পানিগুলোর পেছনে যারা আছেন, তাদের নাম এতকাল সবার অজানাই ছিল।
সম্প্রতি 'ফিনসেন ফাইলস' নামে যেসব ব্যাংকিংখাতের দলিলপত্র ফাঁস হয়েছে- তার মধ্যে কিছু দলিলপত্রে বিভিআইয়ের ওই চারটি দাতা কোম্পানির নাম আছে। এসব দলিলপত্রে ব্যাংকগুলো তাদের আর্থিক লেনদেন এবং কোম্পানির মালিকানা সংক্রান্ত তথ্য রিপোর্ট করেছে।

এসব দলিলপত্র ফাঁস করা হয়েছে বাজফিড নিউজের কাছে - যা তারা শেয়ার করেছে অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম এবং বিবিসির সাথে। এই সব দলিলপত্রে দেখা যায় রোমান আব্রামোভিচের নাম। তিনি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ফুটবল ক্লাব চেলসির মালিক।
এলাদকে অর্থ দান করে এমন তিনটি কোম্পানির চূড়ান্ত মালিক হচ্ছেন মি. আব্রামোভিচই - আইনের ভাষায় যাকে বলে 'বেনেফিশিয়াল ওনার' । আর চতুর্থ কোম্পানিটিও নিয়ন্ত্রণ করেন তিনিই।

এলাদের এ্যাকাউন্টে দেখা যায়, এই কোম্পানিগুলো তাদেরকে যে অর্থ দিয়েছে তার পরিমাণ এখনকার বিনিময় হারে ১০ কোটি ডলারেরও বেশি হবে। এর মানে হলো গত ১৫ বছরে এলাদকে এককভাবে সবচেয়ে অর্থ দান করেছেন রোমান আবামোভিচ।

আব্রামোভিচের একজন মুখপাত্র বিবিসিকে বলেছেন, ‘আব্রামোভিচ ইসরায়েলি এবং ইহুদি সুশীল সমাজের একজন নিবেদিতপ্রাণ ও উদার সমর্থক। গত ২০ বছরে তিনি স্বাস্থ্যসেবা, বিজ্ঞান, শিক্ষা এবং ইসরায়েল ও বিশ্বের অন্যত্র ইহুদি কমিউনিটির জন্য ৫০ কোটি ডলারেরও বেশি দান করেছেন।’ এই অর্থায়ন ছাড়া এলাদ এই ফিলিস্তিনি এলাকাটিতে ইহুদিদের উপস্থিতি শক্তিশালী করার লক্ষ্য নিয়ে এত দ্রুত ও সফলভাবে কাজ করতে পারতো না। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Sohag Khan ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:৩৪ পিএম says : 0
সে কি আদৌ মানুষ !
Total Reply(0)
সাদ্দাম ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:৩৫ পিএম says : 0
বিশ্বের কোন শান্তিপ্রিয় সুস্থ মানুষ ইসরাইলকে সহযোগীতা করতে পারে না।
Total Reply(0)
রিপন ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:৩৬ পিএম says : 0
বিশ্বের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি ইসরাইল । আর ইনি তাদেরকেই সাহায্য করছে !
Total Reply(0)
প্রিয়সী ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:৩৬ পিএম says : 0
আল্লাহ যেন তাকে ফরিক করে দেয় সেই দোয়া করছি
Total Reply(0)
নুরজাহান ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:৩৮ পিএম says : 0
রোমান আব্রামোভিচর দল ইংলিশ ফুটবল ক্লাব চেলসিতে কোন বিবেকবান খেলোয়ারের খেলা উচিত নয়
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন