ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

রৌমারী সীমান্ত

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

কোনভাবেই কমছে না সীমান্তে হত্যাকান্ড। দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর বৈঠক কিংবা উচ্চ পর্যায়ে বারবার বৈঠক করে সীমান্ত হত্যা কমিয়ে আনার কথা বলা হলেও সেটি শুধুমাত্র কাগজে-কলমেই সীমাবদ্ধ। বাস্তবিক প্রয়োগ সেখানে সম্পূর্ণ ভিন্ন।

সীমান্তে হত্যার একটি ঘটনার প্রেক্ষিতে জামালপুর বিজিবি-৩৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল একে আজাদ বলেন, ভারতের অভ্যন্তরে কাঁটা তারের বেড়ার কাছে গেলেই বিএসএফ তাকে গুলি করে হত্যা করে। তেমনি এক ঘটনা ঘটেছে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের খাটিয়ামারী সীমান্তে। বিএসএফ’র গুলিতে হাসিনুর রহমান ওরফে ফকির চাঁদ (২৮) নামে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। গত শুক্রবার মধ্যরাতের দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান রৌমারীর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মন্তাছির বিল্লাহ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিহত হাসিনুর রহমান উপজেলার সদর ইউনিয়নের খাটিয়ামারী গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে আন্তর্জাতিক সীমান্ত ১০৬২/৩এস পিলার দিয়ে ভারত থেকে মাদক আনতে যায়। এ সময় আসাম রাজ্যের হাটশিংমারী জেলার মাইনকারচর থানার কুসনীমারা ক্যাম্পের বিএসএফ-৬ ব্যাটালিয়ন সদস্যরা গুলি করে।

এ সময় হাসিনুর রহমান নামে একজন বাংলাদেশি বুকে ও পেটে গুলি লেগে আহত হয়। রাতেই তার সহকর্মীরা আহত অবস্থায় রৌমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত হাসিনুর রহমানের নামে একাধিক মাদক মামলা রয়েছে বলে সূত্র নিশ্চিত করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ থানায় নিয়ে আসে।

বিজিবি ৩৫ ব্যাটেলিয়ন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল এসএম আজাদ বলেন, সীমান্তে গুলির ঘটনায় বিএসএফকে প্রতিবাদ চিঠি দেয়া হবে। এক প্রশ্নের জবাবে বিজিবি কমান্ডার বলেন, সীমান্তে চোরাকারবারীদের প্রতিহত করতে বিজিবি সক্রিয় রয়েছে। তবে স্থানীয়দের সহায়তা ছাড়া সেটা পুরোপুরি বন্ধ করা কষ্টসাধ্য। এজন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সবার সহায়তা প্রয়োজন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Shafiqul Islam ২২ নভেম্বর, ২০২০, ১০:৪৮ এএম says : 0
ভারত নামক কা-পুরুষ রাষ্ট্রটি শুধু পারে বাংলাদেশের সাথে। বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে জানা যায় চীন, পাকিস্তানের কাছে ভারত প্রতিনিয়ত মার খাচ্ছে। নেপাল তাদের (ভারতের) জনসাধারণকে বর্ডার থেকে ধরে নিয়ে যায় আর শ্রীলংকার নৌপুলিশ ভারতের জেলেদের ধরে নিয়ে আটকে রাখে। মাঝে মাঝে দ্বীপ রাষ্ট্র মালদ্বীপও ভারতকে চোখ রাঙায়।
Total Reply(0)
Jack Ali ২২ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৪০ পিএম says : 0
O'Bangladesi Government you are insulting our nations every way.. Why we cannot kill BSF?????????????????
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন