ঢাকা রোববার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮, ০৫ রমজান ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পিকে হালদারের বান্ধবী অবন্তিকাকে আবারো তলব করবে দুদক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

পলাতক প্রশান্ত কুমার হালদার (পিকে হালদার)র ‘বান্ধবী’ অবন্তিকা বড়ালকে আবারও তলবি নোটিশ পাঠাবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রথম তলবে সাড়া না দেয়ায় বিধি অনুযায়ী শিঘ্রই তাকে দ্বিতীয়বার নোটিশ দেয়া হবে। এ তথ্য জানিয়েছে সংস্থার একটি দায়িত্বশীল সূত্র।

সূত্রমতে, গত ২৮ ডিসেম্বর অবন্তিকা বড়ালকে হাজির হতে নোটিশ দেয়া হয়েছিলো। রাজধানীর ধানমন্ডির ১০/এ সাত মসজিদ রোডে ৩৯ নম্বর বাড়ির ১২/ই ফ্ল্যাটের ঠিকানায় অবন্তিকাকে নোটিশ দেয়া হয়। এই ফ্ল্যাটটি তার নামেই কেনা। ইতিপূর্বে দুদকের দেয়া নোটিশে উল্লেখ করা হয়,আসামি পিকে হালদারের সঙ্গে যোগসাজশে অসৎ উদ্দেশে বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসা ও অবৈধ কর্মকান্ডের মাধ্যমে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগ রয়েছে অবন্তিকার বিরুদ্ধে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সংস্থার উপ-পরিচালক মো.সালাহউদ্দিন এ নোটিশ পাঠান। গত সোমবার সকাল ১০টায় অবন্তিকাকে দুদকে হাজির হওয়ার সময় বেধে দেয়া হলেও নোটিশে তিনি সাড়া দেন নি। ব্যক্তিগত কোনো সমস্যার কারণে হাজির হতে পারেননি বা কবে হাজির হতে পারবেন-এ বিষয়েও লিখিত বা ফোনে দুদককে জানানো হয়নি। এ প্রেক্ষাপটে বিধি অনুযায়ী তাকে দ্বিতীয়বার নোটিশ করা হবে বলে জানিয়েছে সূত্রটি। এর আগে ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার ৬ নং রোডের পুরাতন ২১ নং ও নতুন ১৭ নং প্লটে নির্মিত ১৪ তলা বাড়ির সপ্তম তলায় ২ হাজার ৬০৩ বর্গফুটের এ-৭ নং ফ্ল্যাট এবং রূপগঞ্জে পিকে হালদারের মালিকানায় থাকা বিপুল সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালত।

এর আগে দুদকের কৌঁসুলি খুরশীদ আলম খান হাইকোর্টে এক ব্রিফিংয়ে জানান, পিকে হালদারের ৭০-৮০ জন বান্ধবী রয়েছে। তারার পিকে হালদারের অনিয়ম, দুর্নীতি এবং অর্থ পাচারের সঙ্গে নানাভাবে সংশ্লিষ্ট। এরপরই দুদক পিকে হালদারের বান্ধবীদের খোঁজে মাঠে নামে দুদক। ২৭১ কোটি ৯১ লাখ ৫৫ হাজার ৩৫৫ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও দেড় হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী বাদী হয়ে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে গত ৮ জানুয়ারি মামলা করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Mofizul Islam ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:২৪ এএম says : 0
পলাইয়া যাওয়ার পর আর সরকার যখন চায় তখন এই দুদক সব জানতে পরে!!
Total Reply(0)
Anower Firoz ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:২৫ এএম says : 0
পিকে হালদারের বান্ধবি রিক্সাওয়ালা কুলি কামার মাইয়া, বউ নয় কিন্তু
Total Reply(0)
Saiful A Palash ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:২৫ এএম says : 0
স্বাধীন দেশে এই টাকা পাচারকারী, দূর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজরাই নব্য রাজাকার এবং স্বাধীনতা বিরোধী।।
Total Reply(0)
Majibar Majibar ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:২৬ এএম says : 0
দুদক এতদিন কি চকলেট খেয়েছে?
Total Reply(0)
Rudro Pratap ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:২৬ এএম says : 0
পি কে হালদার বাংলাদেশে যতগুলো প্রতিষ্ঠান থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে তার সবগুলো প্রতিষ্ঠানের মূল মালিকই হচ্চে এসআলম গ্রুপ৷এবং পি কে হালদার সবগুলো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন এবং কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান তার মনিটরিংয়ে চলতো এসআলম গ্রপের নির্দেশে৷এখন আপনারাই বলুন টাকা কি পি কে হালদারের কাছে নাকি এসআলম গ্রপের কাছে৷পানি পি কে হালদারের পুকুরে ঢুকিয়ে পুকুরের সব মাছ ধরে নিয়েছে এসআলম গ্রপ৷দিস ইজ রিয়েল ষ্টোরি৷
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন