শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮, ২০ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

স্বাস্থ্য

করোনা সংক্রমণে দাঁত ও মুখের চিকিৎসা

| প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০৬ এএম

করোনা ভাইরাস সংক্রমণকালীন সময়ে দাঁত ও মুখের চিকিৎসা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। শুধু ঝুঁকিপূর্ণ বললে ভুল হবে কখনো কখনো তা মারাত্মক পরিণতি বয়ে আনতে পারে। করোনা ভাইরাস গ্রহণকারী রিসেপটর বেশী হওয়ার কারণে দাঁত ও মুখের রোগীদের তুলনামূলক ঝুঁকি অনেক বেশী থাকে। দাঁতের চিকিৎসায় অত্যন্ত উচ্চ গতিসম্পন্ন হ্যান্ড পিস এবং আল্ট্রাসনিক স্কেলার মেশিন ব্যবহার হওয়ার কারণে চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে প্রচুর পরিমাণে ড্রপলেট এবং অ্যারোসল উৎপন্ন হয় যা কখনই প্রচলিত সাকসনের মাধ্যমে অপসারণ করা সম্ভব হয় না। হাই সাকশন মেশিন বা উন্নত কোনো সাকশন মেশিনের মাধ্যমেও সম্পূর্ণরূপে অ্যারোসল অপসারণ করা সম্ভব হয় না। চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে উৎপন্ন হওয়া অ্যারোসলের মধ্যে ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস থাকে যা কখনই খালি চোখে দেখা যায় না। অন্যান্য ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের পাশাপাশি করোনা ভাইরাসও অ্যারোসলের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তে পারে। এই ড্রপলেট এবং অ্যারোসল বাতাসে ভেসে থাকার কারণে ডেন্টাল ক্লিনিকে উপস্থিত অন্যান্য ব্যক্তিদের মাঝেও ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত হতে পারে। তবে আশার কথা হলো ডাক্তার এবং রোগী যেন সংক্রমিত না হয় বা চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে করোনা ভাইরাস যেন বিস্তার লাভ না করতে পারে সেজন্য বিশ্বের অন্যান্য দেশের ডাক্তারদের মতো আমাদের দেশের ডাক্তাররাও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে শুরু করেছেন। তাই দাঁত ও মুখের চিকিৎসা খুব জরুরী না হলে বা দাঁতে প্রচন্ড ব্যথা না হলে এই মুহুর্তে চিকিৎসা না করাই উত্তম। কোনো ভাবেই কোনো হাতুড়ে ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা করবেন না। করলে আপনি ভয়াবহ করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হতে পারেন যা আপনার জীবনের ঝুঁকি বহুগুন বাড়িয়ে দিবে। কারণ বিধি না মেনে দাঁতের চিকিৎসা করলে করোনা ভাইরাসের লোড এবং সংক্রমন স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেক অনেক বেশী থাকবে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমন কিছুটা কমলেও মৃত্যুর সংখ্যা কমেনি। অনেকেই করোনা ভাইরাস বহন করছেন কিন্তু তাদের শরীরে কোনো লক্ষণ প্রকাশ পায় না। এর কারণ হিসাবে দেখা যায় অনেকের শরীরে মেমোরি টি সেল উৎপন্ন হয়েছে। তাদের শরীরে করোনা ভাইরাস প্রবেশ করা মাত্র মেমোরি টি সেল করোনা ভাইরাসকে চিনে ফেলে এবং আক্রমণ করে মেরে ফেলে। কিন্তু এদের মাধ্যমে সমাজে বিভিন্ন স্তরের মানুষের মধ্যে সংক্রমণ বিস্তৃতি লাভ করছে। এ কারণেই সবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত এবং মাস্ক পড়া অবশ্যই নৈতিক দায়িত্ব। টিকা নিলেও সবাই স্বাস্থবিধি অবশ্যই মেনে চলবেন।

ডাঃ মোঃ ফারুক হোসেন
মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
মোবাইল ঃ ০১৮১৭৫২১৮৯৭
ই-মেইল ঃ dr.faruqu@gmail.com

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন