ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বরগুনায় কাবিখার চাল আত্মসাৎ

বরগুনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০২১, ৫:৩০ পিএম

কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা) কর্মসূচির আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের একটি প্রকল্পের কোন কাজ না করে পুরো বরাদ্দ আত্মসাৎ করেছেন বরগুনা সদর উপজেলার আয়লাপাতাকাটা ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এক সদস্য।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা) কর্মসূচি ২য় কিস্তির আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে আয়লাপাতাকাটা ইউনিয়নের জাঙ্গালিয়া গ্রামের সফেল গাজীর বাড়ি হতে নিজাম মেম্বরের বাড়ির খাল পর্যন্ত রাস্তা মেরামতের জন্য ৫টন ৪শ’ ৯০ কেজি চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। এ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ৫সদস্য বিশিষ্ট প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি করা হয়। যার প্রধান হলেন আয়লাপাতাকাটা ইউনিয়ন পরিষদের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য মোসাম্মৎ আইরিন আক্তার। অন্যান্য সদস্যগণ হলেন মমিন গাজী, আ. জব্বার মৃধা, মহিউদ্দিন নান্টু ও সোহরাফ হোসেন।

প্রকল্পটি ২০ সালের মার্চ মাসের মধ্যে শেষ করার নির্দেশনা থাকলেও অদ্যোবধি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি রাস্তা সংস্কার করেনি।
প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির সদস্যগণ জানান, কাজটি না করে আমাদের সই-স্বাক্ষর ছাড়াই ভুয়া মাস্টার রোল দাখিল করা হয়েছে।
এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি সহিলা সদস্য মোসাম্মৎ আইরিন আকতার জানান, ‘সময়, পরিবেশপরিস্থিতি ও আবহাওয়া অনুকুলে না থাকায় কাজটি যথাসময়ে করতে পারিনি। তবে পিআইওর পরামর্শে ৭৫ হাকার টাকা জমা দিয়েছি, শীঘ্রই কাজটা করে ফেলব।’

আয়লা পাতাকাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার আশশাকুর রহমান ফিরোজ বলেন, ‘প্রকল্পটি কি অবস্থায় আছে আমার জানা নেই। পিআইও বা ইউএনও অফিসে খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন।’

বরগুনা সদরের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মফিজুর রহমান জানান, ‘আইরিন মেম্বর বিল-ভাউচার জমা না দিয়ে ৭৫হাজার টাকা জামানত হিসেবে দিয়েছেন। উনি পরবর্তীতে কাজটি করে নিবেন।’

এব্যাপারে বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুমা আক্তার বলেন, ‘বিষয়টি বিস্তারিত জেনে বলতে পারব।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন