ঢাকা, শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০২ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

চৌদ্দগ্রামে খাদ্যে বিষ মিশিয়ে নগদ টাকা সহ স্বর্ণালংকার লুট, শিশু সহ হাসপাতালে ভর্তি-৬

চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ৬:২৪ পিএম

কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে পৌরসদরের পশ্চিম চাঁন্দিশকরা এলাকায় খাদ্যে বিষ মিশিয়ে একটি পরিবারের নগদ ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা, ৫ ভরি স্বর্ণসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিষপত্র লুট করে নিয়েছে সংঘবদ্ধ চোরচক্র। গত শুক্রবার ভোররাতে পশ্চিম চাঁন্দিশকরার নুর ইসলাম সর্দারের বসতঘরে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটে। এসময় চোরচক্রের মিশানো বিষে আক্রান্ত হয়ে ঐ পরিবারের ১-২ বছর বয়সী ৩টি শিশু, ছেলে সেলিম, শহিদ, ছেলের বউসহ অন্তত ৫-৬ জন অজ্ঞান হয়ে অসুস্থ অবস্থায় আছে। এদের মধ্যে নুর ইসলাম সর্দারের এক পুত্রবধূর এখনো জ্ঞান ফিরেনি। বর্তমানে সে কুমিল্লার একটি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে এবং ক্ষতিগ্রস্থদের দেখতে এলাকাবাসী ভিড় জমাচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শী এবং ঘরের মালিক নুর ইসলাম সর্দার জানান, সম্ভবত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর টিনশেডের ঘরে চোরচক্রের যে কোন এক সদস্য লুকিয়ে পড়ে এবং আমাদের সন্ধ্যা রাতের খাদ্যে বিষ মিশিয়ে দেয়। অন্যান্য দিন সাড়ে ১০ঘটিকা কিংবা ১১ঘটিকায় ঘুমালেও ঐদিন এশারের নামাজের পর খাদ্য খাওয়ার ৩০-৪০ মিনিটের মধ্যে সবাই ঘুমিয়ে পড়ে। শুক্রবার ভোর ৩টায় পাশের ঘরের লোকজন সেহরি খাওয়ার উদ্দেশ্যে আমাদের ডাকতে এসে দেখে ঘরের দরজা খোলা। তারা আমাদের সকলকে জাগানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে চিৎকার করলে আশেপাশের লোকজন এসে জড়ো হয়। এসময় ঘরের প্রতিটি রুমের দরজা এবং আলমিরা খোলা দেখা যায়।

নুর ইসলাম সর্দার জানান, চোরচক্র ঘরে প্রবেশ করে আলমিরায় রক্ষিত ১ লক্ষ ৬০ হাজার নগদ টাকা, ৫ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। বেশ কিছু স্বর্ণ পুত্রবধূ এবং মেয়ের গলা থেকে টেনে নিয়ে যায়। বিষক্রিয়ায় অচেতন থাকায় কেউ টের পায়নি। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন নুর ইসলাম সর্দারের ছেলে গ্রামবাংলা ট্রান্সপোর্ট এর কর্মচারী মোঃ সেলিম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন