ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৮ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে পুলিশ ৩ জনকে খুন করেছে

এস এম আলী আহসান পান্না, কুষ্টিয়া থেকে | প্রকাশের সময় : ১৪ জুন, ২০২১, ১২:০০ এএম

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে সড়কের পাশে নারী, পুরুষ ও শিশুকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশের এএসআই সৌমেন রায়কে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। গতকাল রোববার বেলা ১১টার দিকে শহরের পিটিআই সড়কের কাস্টমস মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজন হলেন- আসমা খাতুন (৩০) ও তার ছেলে রবিন (৬) এবং শাকিল (৩৫) নামের এক যুবক। তাদের সবার বাড়ি কুমারখালীর চাপড়া ইউনিয়নের সাওতা-নাটুরিয়া গ্রামে। তবে তারা কুষ্টিয়া শহরে থাকতেন। শাকিল বিকাশের এজেন্ট হিসেবে কাজ করতেন। নিহত আসমা খাতুনের প্রথম স্বামীর সন্তান রবিন। স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর দেড় বছর আগে পুলিশ কর্মকর্তা সৌমেনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। সম্প্রতি প্রতিবেশী শাকিলের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি সৌমেন। এজন্য ক্ষুব্ধ হয়ে তিনজনকে হত্যা করেছেন বলে পুলিশ জানায় ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, গতকাল দুপুরে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের কাস্টমস মোড়ে তিনতলা একটি ভবনের সামনে এক নারী ছয় বছরের ছেলেশিশুকে নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় সেখানে শাকিলও ছিলেন। হঠাৎ সেখানে গিয়ে সৌমেন প্রথমে ওই নারীর মাথায় গুলি করেন। এরপর পাশে থাকা শাকিলের মাথায় গুলি করেন। ভয়ে ছেলেশিশুটি দৌড়ে মসজিদের মধ্যে পালাতে গেলে তাকেও ধরে মাথায় গুলি করা হয়। আশপাশের লোকজন সৌমেনকে ধরতে গেলে তিনি দৌড়ে তিনতলা ভবনের ভেতরে ঢুকে পড়েন।এরপর শতাধিক লোকজন জড়ো হয়ে ওই ভবন লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ও র্যাব ঘটনাস্থলে যায় ও পরিস্থিতি সামাল দিয়ে গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আসমাকে মৃত ঘোষণা করেন। অস্ত্রোপচারকক্ষে গুলিবিদ্ধ শাকিল ও শিশু রবিনের মৃত্যু হয়। কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার (এসপি) মো. খায়রুল আলম ও জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. তাপস কুমার সরকার তিনজনের নিহতের বিষয়টি জানিয়েছেন। খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি এ কে এম নাহিদুল ইসলাম বলেন, সৌমেন রায় স্বীকার করেছেন তিনি পরকীয়ার জেরে তার স্ত্রীসহ ৩ জনকে গুলি করে হত্যা করছেন। খুলনা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান বলেন, আটক সৌমেন রায় ফুলতলা থানার এএসআই। গতকাল সকাল থেকে তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। তিনি ছুটি না নিয়ে আনঅফিশিয়ালি কুষ্টিয়ায় চলে গেছেন। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (14)
Burhan uddin khan ১৪ জুন, ২০২১, ১২:২৪ এএম says : 0
Urgent punishment please.....
Total Reply(0)
Md Nurul Huda ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৬ এএম says : 0
যাদের হাতে অস্ত্র তুলে দেয়া হয়েছে মানুষের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য আজ তারাই মানুষের নিরাপত্তার বড় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। পুলিশ নিয়োগের ক্ষেত্রে দলীয় এবং স্বজনপ্রীতি বন্ধ করে সৎ সাহসি এবং দেশপ্রেমিক শিক্ষিত যুবকদের অগ্রাধিকার দেয়া হোক।
Total Reply(0)
Satya Sarker ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৭ এএম says : 0
খুবই দুঃখজনক ও মর্মান্তিক ঘটনা, অপরাধীর সাজা হোক, সেইসাথে অভ্যন্তরীণ বিষয়ও উদঘাটন হোক।
Total Reply(0)
Angel Pori ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৭ এএম says : 0
আইনের রক্ষক হয়ে ভক্ষককে পরিনত হলে জনগণের নিশ্বাস ফেলা কঠিন ,,, রাষ্ট্র যেন নির্বিকার,, জনমনে ভীতিকর পরিবেশ তৈরি হচ্ছে
Total Reply(0)
Tajul Islam ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৭ এএম says : 0
ছয় বছরের শিশুকেও গুলি! মসজিদ থেকে বের করে এনে পিস্তল ঠেকিয়ে চার রাউন্ড গুলি করে একটি অবুঝ শিশুকে যে হত্যাকরে তার বিচার কি আমাদের রাষ্ট্র করার সামর্থ্য রাখে?
Total Reply(0)
Md Sujon Islam Sujon ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৮ এএম says : 0
অতিরিক্ত ক্ষমতা আজকে এইসব ঘটনার মূল কারণ। যে দেশে রক্ষকরা ভক্ষক সে দেশে ন্যায় বিচার হওয়াটা হাস্য কর
Total Reply(0)
H.m. Mahdi Hasan ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৮ এএম says : 0
মুসলমান এর মেয়ে টা হিন্দু অফিসারের বউ। এই বিষয় টা তদন্ত করে জাতির কাছে খোলাসা করলে সব ঠিক হয়ে যাবে।তবে শিশু রবিন, শাকিল হত্যার জন্য ফাসির রায় দ্রুত কার্যকর করা হউক।
Total Reply(0)
MD Jakir Quraish ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৮ এএম says : 0
এই দেশের অবস্থা দিন দিন ভয়ানক হয়ে যাচ্ছে এর কারন কি। আপরাধ করতে মানুষ একটুও ভয় পাচ্ছেনা। মানুষ পরকালের কথা ভুলে যাচ্ছে। বিচার দিনের কথা ভুলে যাচ্ছে।
Total Reply(0)
Lutfor Rahaman ১৪ জুন, ২০২১, ১:৪৯ এএম says : 0
এটাকে এমন শাস্তি দিতে হবে যেন আর সবাই এধরণের জঘন্য কাজে সাহস না পায়।
Total Reply(0)
Md Abu Syed ১৪ জুন, ২০২১, ১:৫০ এএম says : 0
অপরাধের যথার্থ শাস্তি না হলে অপরাধী আরো ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে
Total Reply(0)
Belayet ১৪ জুন, ২০২১, ২:৪৮ এএম says : 0
Policé no right to take his gun without duty when he off duty bec he can do what ever he like gouvernement shuld not give permisson to carré his gun ?????
Total Reply(0)
Habib ১৪ জুন, ২০২১, ৩:৩১ এএম says : 0
রাষ্ট্র মানুষের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ
Total Reply(0)
Harunur Rashid ১৪ জুন, ২০২১, ৪:২৩ এএম says : 0
Eye for an Eye justice must be serve.
Total Reply(0)
AZAD ১৪ জুন, ২০২১, ৮:৩৩ এএম says : 0
দেশে বিচার হীনতা এর জন্য দায় বহন করতে হবে ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন