ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সোনালি আসর

লায়ন সিটি সিঙ্গাপুর

প্রকাশের সময় : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

আ ফ তা ব চৌ ধু রী
এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সিঙ্গাপুরের কিছু জানা-অজানা তথ্য- ক্র সিঙ্গাপুরের এক হাজার ডলারের নোটের পিছনে দেশের জাতীয় সংগীত লেখা থাকে। সিঙ্গাপুরের জাতীয় সংগীত হলো মালয় ভাষায়, ‘মাজুলা সিঙ্গাপুর’ বা সিঙ্গাপুর এগিয়ে চলো। ক্র সিঙ্গাপুরে চারটি সরকারি ভাষা রয়েছে। ইংরেজি, মান্দারিন, মালয়ের সঙ্গে রয়েছে তামিল ভাষাও। ক্র সিঙ্গাপুরের নাগরিকরা বেশির ভাগ কথার শেষে ‘লা’ শব্দটি ব্যবহার করেন। এই যেমন ‘ওকে’কে বলেন ‘ওকে’লা’। ক্র পাঁচ বা তার বেশি লোকজনের ক্ষেত্রে কোথাও জড়ো হতে গেলে পুলিশের নানা কড়া নিয়মাবলি মানতে হয়। ক্র সিঙ্গাপুরকে বলা হয় সিংহের শহর বা ‘লায়ন সিটি’। অথচ বাস্তবে গোটা সিঙ্গাপুরে একটাও সিংহ নেই। ক্র রাত ১০টার পর দুজনের বেশি লোক জমায়েত হওয়া অবৈধ। ক্র সিঙ্গাপুরে মাত্র একটাই দল রয়েছে। দলটির নাম ‘পিপলস অ্যাকশন পার্টি’। ১৯৫৯ সাল থেকে ‘পিপলস অ্যাকশন পার্টি’ দেশের ক্ষমতায় রয়েছে। ভোট পরিচালনা করে এই দলেই। ক্র ১৯০৫ সাল থেকে মোট ৬ বার টাইম জোন পরিবর্তন করে সিঙ্গাপুর। ১৯৮২ সালে সিঙ্গাপুর শেষবার তাদের টাইম জোন পরিবর্তন করে। এখন সিঙ্গাপুরের টাইম জিএমটির থেকে আট ঘণ্টা এগিয়ে। ক্র সিঙ্গাপুরের নাগরিকরা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুততম হাঁটা মানুষ (ঋধংঃবংঃ ধিষশরহম ংঢ়ববফ) ১০.৫৫ সেকেন্ড সিঙ্গাপুরিয়ানরা হাঁটে ১৮ মিটার, মানে ঘণ্টায় ৬.১৫ কিলোমিটার। সেখানে বাংলাদেশের হাঁটার গতি ঘণ্টায় গড়ে ৫ কিলোমিটার। ক্র ২০০৫ সালে জুয়াকে আইনসিদ্ধ করে সিঙ্গাপুর। ক্র নিজের ঘরের মধ্যে নগ্ন থাকলেও আইনগত শাস্তি হতে পারে সিঙ্গাপুরের নাগরিকদের। কারণ আইন অনুযায়ী নগ্ন অবস্থায় কেউ দেখে ফেললেই যিনি নগ্ন ছিলেন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা যাবে। ক্র আত্মহত্যার চেষ্টা করা সিঙ্গাপুরে আইন বিরুদ্ধ কাজ। পেনাল কোডের ৩০৯ ধারায়, আত্মহত্যার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে মানুষের জেল হয় সিঙ্গাপুরে। ক্র ইন্টারনেট পর্নোগ্রাফির ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ক্র ইন্টারনেটে গান বা সিনেমা ডাউনলোড করা আইনত দ-নীয় অপরাধ। ক্র অনুমতি না নিয়ে কাউকে জড়িয়ে ধরা আইনগত দ-নীয় অপরাধ। ক্র সিঙ্গাপুরের ডাক নাম ‘ফাইল সিটি’ বা জরিমানার শহর। কারণ বিভিন্ন ছোট ছোট কারণে এখানে জরিমানার ব্যবস্থা আছে। ক্র বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বজ্রপাত হওয়া জায়গাগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো সিঙ্গাপুর। বছরে গড়ে ১৭১ বার বাজ পড়ে এই শহরে। ক্র ১৯৯২ সাল থেকে সিঙ্গাপুরে চুইংগাম নিষিদ্ধ। কারণ চুইংগামে পথচারীদের অসুবিধা হয়। সিঙ্গাপুরিয়ানরা সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার মধ্যে ডিনার সেরে ফেলে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন