মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

রাষ্ট্রধর্ম মানি না বলে মন্ত্রী সংবিধান অমান্য করেছেন : কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নজরুল ইসলাম খান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৪ এএম

রাষ্ট্রধর্ম মানি না বলে সরকারের মন্ত্রী সংবিধান অমান্য করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, সংবিধানে লেখা আছে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম। কিন্তু আমরা কি অদ্ভুত এক রাষ্ট্রে বসবাস করছি যেই রাষ্ট্রের একজন মন্ত্রী বলেন আমি মানি না। মন্ত্রী, এমপিরা শপথ গ্রহণ করে সংবিধান সুরক্ষার জন্য। তারা যদি সংবিধান অমান্য করেন তাৎক্ষণিক তার বিচার হওয়া দরকার। কিন্তু এখন পর্যন্ত সেই বিচার না করার ফলে শুধু মন্ত্রী না সংবিধান অমান্যের অভিযোগে এই সরকার অভিযুক্ত হয়েছে। কিন্তু সে জন্য তারা লজ্জিতও হবে না ও সংবিধান অনুযায়ী যেটা করা দরকার পদত্যাগ, সেটাও করবেন না।
গতকাল বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় শ্রমিক দল আয়োজিত দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, সরকার কিছু সংস্থাকে দলীয়করণ ও আত্মীয়করণ করে এমন করে ফেলেছে যে, তারা সংবিধান অনুযায়ী আচরণ করে না। তারা দলীয় নেতাকর্মীর মতো আচরণ করে। এই অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে।
তিনি বলেন, একটি দল এ দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছিল। সেখান থেকে আমাদের নেতা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছিল। আবার আমাদের দেশে এক সামরিক স্বৈরশাসক গণতন্ত্র হত্যা করেছিল। দীর্ঘ নয় বছর আপোষহীন লড়াই করে আমাদের নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া পুনরায় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করেছে। আমরা সেই দল যেই দল সংবাদ পত্রের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিয়েছি, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিয়েছি এবং সকল শ্রেনী পেশার মানুষের কল্যাণের ব্যবস্থা করেছি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, আজকে গণতন্ত্রহীন বাংলাদেশ এমন একটি দল শাসন করছে যারা এক নির্বাচনে ৩০০ এর মধ্যে ১৫৩ টি আসনে বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নিজেদেরকে নির্বাচিত করেছে। আরেক নির্বাচনে ভোটের দিনের আগের রাতেই তারা ভোটের বাক্স ভর্তি করে ফেলেছে। এরা যত দিন ক্ষমতায় থাকবে তত দিন পর্যন্ত এদেশের মানুষের ভোটের যে গণতান্ত্রিক অধিকার সেই অধিকার ফিরে আসবে না।
তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে আমরা কোনো ষড়যন্ত্রে বিশ্বাস করিনা, উচ্ছৃঙ্খলতায় বিশ্বাস করি না, কোনো সন্ত্রাসে বিশ্বাস করি না। আমরা গণ আন্দোলনের মাধ্যমে যেমন স্বৈরশাসক এরশাদের পতন ঘটিয়েছি, ৬৯ -এ যেভাবে আইয়ুব খানকে হটাতে পেরেছি ঠিক একইভাবে ইনশাআল্লাহ এই সরকারকেও হটাতে পারবো।

শ্রমিকদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি আনোয়ার হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহŸায়ক আব্দুস সালাম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সারোয়ার, শ্রমিক দলের হুমায়ুন কবির খান, মেহেদী হাসান খান, মুস্তাফিজুল করিম মজুমদার, মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের কাজী আমীর খসরু, মাহবুব আলম বাদল প্রমুখ।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন