মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

গ্রিন ইনিশিয়েটিভ ফাউন্ডেশনের ঘোষণা সউদী যুবরাজের : প্রশংসা ইমরান খানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০০ এএম

সউদী আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান গতকাল মধ্যপ্রাচ্য গ্রিন ইনিশিয়েটিভে ভবিষ্যতের শীর্ষ সম্মেলনের কাজকে সমর্থন করার জন্য একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রিন ইনিশিয়েটিভ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছেন।
যুবরাজ ৩৯ বিলিয়ন সউদী রিয়াল (১০.৩৯ বিলিয়ন ডলার) ব্যয়সাপেক্ষ দুটি সবুজ উদ্যোগের ঘোষণা দিয়েছেন, যার মধ্যে সউদী আরব ১৫ শতাংশ অবদান রাখবে এবং ঝড়ের আগাম সতর্কীকরণ এবং মৎস্য খাতের টেকসই উন্নয়নের জন্য দুটি আঞ্চলিক কেন্দ্র স্থাপন।
তিনি বলেন, ‘আজ আমরা এ অঞ্চলের জন্য একটি নতুন সবুজ যুগের সূচনা করছি। বিশ্বাস করি যে, এর প্রভাব পরিবেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না, বরং অর্থনীতি এবং নিরাপত্তায়ও পড়বে’।
যুবরাজ ঘোষণা করেছেন যে, তিনি একটি বৃত্তাকার কার্বন অর্থনীতির ধারণা বাস্তবায়নের জন্য একটি সহযোগিতা প্ল্যাটফর্ম প্রতিষ্ঠা করবেন এবং আবহাওয়া পরিবর্তনের জন্য একটি আঞ্চলিক কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করবেন।
তিনি বলেন, ‘পরিবেশ রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ, নির্গমন কমাতে এবং আঞ্চলিক সমন্বয়ের মাত্রা বৃদ্ধিতে এ কেন্দ্র ও কর্মসূচির একটি বড় ভ‚মিকা থাকবে’।
বিদ্যুতের বাজার বিকাশে দেশের অগ্রণী ভ‚মিকার একটি স¤প্রসারণ হিসাবে যুবরাজ বলেন, তার দেশ এ অঞ্চলে সার্কুলার কার্বন ইকোনমি প্রযুক্তির সমাধানের জন্য বিনিয়োগের জন্য একটি তহবিল প্রতিষ্ঠায় কাজ করবে।
তিনি বলেন, ‘সমন্বয়ের স্তর বাড়াতে আমরা ভবিষ্যতে সামিটের কাজকে সমর্থন করার জন্য একটি অলাভজনক সংস্থা হিসাবে গ্রিন ইনিশিয়েটিভ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার ঘোষণা করেছি’।

সউদী গ্রিন ইনিশিয়েটিভের প্রশংসায় ইমরান খান

এদিকে সউদী আরবের গ্রিন ইনিশিয়েটিভের প্রশংসা করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বিশ্বজুড়ে আবহাওয়া পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব তুলে ধরেছেন।
রিয়াদে সোমবার মিডল ইস্ট গ্রিন ইনিশিয়েটিভ সামিটে আলাপকালে খান বলেন, পাকিস্তান ২০৩০ সালের মধ্যে ক্লিন এনার্জি তার মোট জ্বালানির ৬০ শতাংশ নিশ্চিত করতে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে।
তিনি বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে দেশের ৩০ শতাংশ পরিবহন বিদ্যুতে চলবে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই ২৪শ’ মেগাওয়াট কয়লা প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দিয়েছি এবং সেগুলো ২৭শ’ মেগাওয়াট পানিবিদ্যুৎ প্রকল্পে বদলে দিয়েছি।
তিনি বলেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে বিশ্বের ১০টি ঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকায় রয়েছে পাকিস্তান। গত ১০ বছরে দেশে ১৫০টি দুর্ঘটনা ঘটেছে যা পরিবেশকে প্রভাবিত করেছে।
তিনি বলেন, ‘আমরা তার দেশকে সবুজ করার চমৎকার উদ্যোগের জন্য সউদী আরবকে অভিনন্দন জানাই’। খান বলেন, পাকিস্তান স¤প্রতি গ্রিন বন্ড ইস্যু করে ৫০ কোটি ডলার সংগ্রহ করেছে।
তার দেশের বনায়ন প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘আমরা ১০ বিলিয়ন গাছ [রোপণে] বিনিয়োগ করেছি, আমরা ইতোমধ্যে আড়াই বিলিয়ন রোপণ করেছি।
‘আমরা ২০২৩ সালের মধ্যে আরো ১ বিলিয়ন ম্যানগ্রোভ গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করছি’। সূত্র : ডন অনলাইন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
রুহান ২৬ অক্টোবর, ২০২১, ৩:২০ এএম says : 0
খুবই ভালো উদ্যোগ
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন