সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩ মাঘ ১৪২৮, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মিটার টেম্পারিং করে ডিপিডিসির ষ্টোর কিপারের ১০ তলা বাড়ি

দেড় কোটি টাকার বিদ্যুৎ চুরির দায়ে মামলা

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১০:২২ এএম

মিটার টেম্পারিং করে নিজের ১০ তলা ভবনের বিদ্যুৎ চুরির প্রমাণ পাওয়ায় ডিপিডিসির এক ষ্টোর কিপার ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দেড় কোটি টাকার বিদ্যুৎ চুরির দায়ে মামলা দায়ের করে সিদ্ধিরগঞ্জের ডিপিডিসি। অভিযানের পর থেকে তার ভবন বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করেছেন ডিপিডিসি। আব্দুল্লাহ আল মামুন নামে বিদ্যুতের ঐ কর্মচারী বর্তমানে ঢাকার পোস্তগোলার ডিপিডিসির ষ্টোর কিপার হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। বিদ্যুৎ কর্মচারী হয়েও অভিযানকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে ঐ বিলকে ভুয়া উল্লেখ করে তার স্ত্রীদ্বারা বিভিন্ন দফতরে আব্দুল্লাহ আল মামুন আবেদন করছেন বলে জাানিয়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জ ডিপিডিসির এক কর্মকর্তা। বিদ্যুৎ চুরির ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

মামলা ও ডিপিডিসি সূত্রে জানাগেছে, গোপন সংবাদরে ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিলস্থ আল হেরা ল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট লিঃ নামক ভবনে (যার বিদ্যুৎ গ্রাহক নং-১৫১৫২২৭০) অভিযান চালায় ডিপিডিসির স্পেশাল টাস্কফোর্স দল। অভিযানে আসা দল এসময় আব্দুল্লাহ আল মামুনের ১০ তলা ভবনের বিদ্যুৎ সরবরাহের মিটারের টেম্পারিং করে বিদ্যুৎ চুরির প্রমাণ পায়। মিটার টেম্পারিং করে তিনি ৫ লাখ ৮ হাজার ৫৮৬ ইউনিট বিদ্যুৎ কারচুপি করেছেন বলে উল্লেখ করা হয় মামলায়। যার জরিমানার বিলের পরিমাণ ১ কোটি ৪৬ লাখ ১০ হাজার ৬’শ ৫৯ টাকা। ৮ নভেম্বরের মধ্যে উক্ত বিল পরিশোধের জন্য ডিপিডিসি সিদ্ধিরগঞ্জ ইউনিট থেকে তাকে চিঠির মাধ্যমে জানানো হলেও তিনি ঐ বিল জমা দেননি। পরবর্তীতে ১৮ নভেম্বর ডিপিডিসি এনওসি সিদ্ধিরগঞ্জ বাণিজ্যিক কার্য্যালয়ের সহকারী প্রকৌশলী আকরাম হোসেন বাদী হয়ে বিদ্যুতের স্পেশাল মেট্টোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে (আদালত নং-৪) একটি মামলা দায়ের করেন (যার নং-২০৩/২১)। মামলায় আব্দুল্লাহ আল মামুনের স্ত্রী মমতাজ বেগমকেও আসামী করা হয়েছে।

মামলা ও বিদ্যুৎ চুরির ঘটনায় আব্দুল্লাহ আল মামুনের বক্তব্য জানতে তার ভবনে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। ঐ ভবনের একাধিক বাসিন্দা জানায়, ঘটনার পর থেকে তাদের ঐ ভবনে দেখা যাচ্ছে না। তার মোবাইল (০১৯৫৪৪২০২৮৭) ফোনে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি।
এ ব্যপারে ডিপিডিসির সিদ্ধিরগঞ্জ বাণিজ্যিক কার্য্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তফিজুর রহমান জানায়, মিটার টেম্পারিং ও বিদ্যুৎ চুরির ঘটনা অবহিত হয়ে ডিপিডিসির স্পেশাল টাস্কফোর্স দল অভিযান চালিয়েছিলো। বিদ্যুৎ চুরি ও মিটার টেম্পারিংয়ের প্রেক্ষিতে আমরা ঐ গ্রাহকের কাছ থেকে বিদ্যুত আইন অনুযয়ী জরিমানাসহ ১ কোটি ৪৬ লাখ ১০ হাজার ৬’শ ৫৯ টাকা নভেম্বরের ৮ তারিখের মধ্যে জমা দেয়ার জন্য চিঠি দিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি ঐ টাকা পরিশোধ না করায় তার বিরুদ্ধে আমরা মামলা করতে বাধ্য হয়েছি। একই সময় আমরা ঐ ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দিয়েছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Sahariyar Rahman Sozib ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:৩৪ পিএম says : 0
দেশের সব পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে অভিযান চালানো দরকার ।তাহলে বোঝা যাবে কেনো এতো লোডশেডিং হয়।
Total Reply(0)
Kazi Kanan ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ২:৪০ পিএম says : 0
খোজ করলে আরো বহু লোক পাওয়া যাবে
Total Reply(0)
Mohammad Mosharaf ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ২:৪০ পিএম says : 0
এ রকম কাহিনী শত শত আছে
Total Reply(0)
Tanvir Reja Ome ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:৩২ পিএম says : 0
সেদিন আর দূরে নয় যেদিন সারা বিশ্ব আমাদের চোর আর ধান্দাবাজ জাতি হিসেবে চিনবে!
Total Reply(0)
Iqbal Khan ২৩ নভেম্বর, ২০২১, ১:৩৩ পিএম says : 0
এই লোকটাকে গ্রেপ্তার করা হলোনা কেন ? সে তো ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে বিদ্যুৎ বিল ঠিকই নিয়েছে কিন্তু নিজের বিল পরিশোধ করে নাই।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন