মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

খালেদা জিয়ার অবস্থা সংকটাপন্ন দেশের মানুষ উদ্বিগ্ন

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০২১, ৬:১৮ পিএম

জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে রয়েছেন দেশনেত্রী বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। তার অবস্থা সংকটাপন্ন। তার এমন অবস্থায় দেশের মানুষ আজ উদ্বিগ্ন। অথচ সরকার পরিকল্পিতভাবে ধীরে ধীরে তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। আইনের ঠুনকো অজুহাতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেয়া হচ্ছেনা। সারাদেশে আওয়াজ উঠেছে খালদা জিয়াকে বাঁচাও। অথচ সরকার নিষ্ঠুরের মত আচরন করছে। আমাদের এখন একদাবী বেগম জিয়াকে বাঁচাও।
গতকাল দুপুরে রাজশাহী নগরীর ভূবনমোহন পার্ক সংলগ্ন রাস্তায় বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন। বিএনপি মহানগর সভাপতি সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইসচেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, সাবেক মন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সাবেক এমপি নাদিম মোস্তফা, বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন শওকত, নগর সেক্রেটারী এ্যাড, শফিকুল হক মিলন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, আমাদের এখন একটাই দাবী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আর উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়া। কেননা জাতীর এই ক্রন্তিকালে বেগম জিয়ার মত আপোষহীন নেত্রীর বড্ড প্রয়োজন। আশাকরি সরকার কাল বিলম্ব না করে বিদেশে চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন।
মিজানুর রহমান মিনু বলেন, দেশের মানুষ আজ চরম সংকটের মধ্যদিয়ে দিনপার করছে। জ্বালানী তেলসহ সব ধরনের পন্যের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধিতে মানবেতর জীবন যাপন করছে। গ্রাম থেকে শহর কোথাও শান্তি নেই। সর্বত্র হাহাকার। মানুষের মধ্যে আওয়াজ উঠেছে সরকার হঠাও জীবন বাঁচাও। এখন একটাই পথ খোলা আছে রাজপথে মরনপন অবস্থান নিয়ে এ স্বৈরাচারী গণবিরোধী সরকারকে বিদায় করে মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরিয়ে আনা। এখন শুরু হবে সরকার হঠানোর একদফা আন্দোলন।
বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ হলেও তাদের অনুমতি দেয়া হয় স্বল্প পরিসরে বিএনপি মহানগর অফিসের সামনের রাস্তায়। ফলে সমাবেশে আগত নেতাকর্মী সমর্থকরা পাশ্ববর্তী ভূবনমোহন পার্কসহ আশেপাশের রাস্তায় অবস্থান নেয়। সমাবেশেস্থল ঘিরে ছিল আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর কড়া অবস্থান। #

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps