শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

শেখ মনি বাংলাদেশের চে গুয়েভারা

নগর ভবনে ডিএসসিসি মেয়র

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০২ এএম

দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ও শেখ ফজলুল হক মনি’র ছোট ছেলে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস তার মরহুম বাবাকে বাংলাদেশের যুবসমাজের চে গুয়েভারা বলে মন্তব্য করেন। চে গুয়েভারা যেমন যুবকদেরকে আদর্শিকভাবে গড়ে তুলেছিলেন, তেমনি শেখ মনিও মুজিববাদ সম্পর্কে তার লেখনির মাধ্যমে যুবকদের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন। এছাড়াও এ দেশের যুবসমাজকে তৃণমূল থেকে সংগঠিত করে তিনি মুজিব বাহিনীর মাধ্যমে স্বাধীনতা যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন।

গতকাল শনিবার বিকেলে দক্ষিণ সিটির প্রধান কার্যালয় নগর ভবন প্রাঙ্গনে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, শেখ ফজলুল হক মনি’র ৮৩তম জন্মদিবসের স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মেয়র ব্যারিস্টার তাপস বলেন, শেখ ফজলুল হক মনি কবি সুকান্তের সেই কবিতা বুকে ধারণ করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে যুবকদেরকে, তরুণ প্রজন্মকে সুসংগঠিত করেছিলেন। বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটকে যদি বহির্বিশ্বের সাথে বাংলাদেশকে তুলনা করি তাহলে, যেমনি চে গুয়েভারা সারা পৃথিবীতে তরুণদের চেতনা, বিপ্লবের চেতনা লালন করেছিলেন তেমনি বাংলাদেশের চে গুয়েভারা হলো শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেন, শেখ ফজলুল হক মনি ছিলেন তারুণ্যের প্রতীক। বঙ্গবন্ধুর সাথে তার সম্পর্ক ছিল সক্রেটিসের সাথে প্লেটোর সম্পর্কের মত। তিনি আরও বলেন, প্রতিদিন প্রেসক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে মানবতার কথা বলেন মির্জা ফখরুল।
প্রেসক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে হুমকি ধামকি দিয়ে আর কূটকৌশলের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ কে ক্ষমতা থেকে হটানোর ক্ষমতা বিএনপির নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু আহমেদ মন্নাফি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির বক্তব্য রাখেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহম্মদের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের থানা ও ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ, সহযোগী সংগঠনের সভাপতি সাধারণ-সম্পাদক এবং করপোরেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন