বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

শাবির ভিসি বিরোধী আন্দোলনে অর্থের যোগান, সিলেট নিয়ে আসা হচ্ছে সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৩:৫৫ পিএম

সিলেটে নিয়ে আসা হচ্ছে ‘ভিসির পদত্যাগ দাবী’ আন্দোলনে অর্থ জোগান দেয়ার অভিযোগে অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) পুলিশের হাতে আটক হওয়া শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) সাবেক ২ শিক্ষার্থীকে। আজ মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সকালে সিআইডির একটি টিম তাদেরকে নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে বলে এসএমপি পুলিশের একটি সূত্র। শাবিপ্রবির আন্দোলনের নেপথ্যে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের টাকার জোগান দেয়ার পেছনে আর কারা রয়েছেন সেসব বিষয় খতিয়ে দেখার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কিটেকচার বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী রেজা নূর মঈন ও সিএসই বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমানকে সিলেটে নিয়ে আসার অন্যতম কারণ। উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদের পদত্যাগের দাবিতে যেহেতু সিলেটে আন্দোলন হচ্ছে যার জন্য আটককৃতদের বিরুদ্ধে সিলেট মহানগর পুলিশের জালালাবাদ থানায় মামলা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) আশরাফ উল্যাহ তাহের বলেন, শাবিপ্রবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের টাকা যোগান দেয়ার অভিযোগে সিআইডি’র একটি টিম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক দুজন শিক্ষার্থীকে আটক করেছে বলে শুনেছি। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য আটককৃতদের সিলেটে নিয়ে আসছে সিআইডি’র একটি দল।
এদিকে, এসএমপি জালালাবাদ থানার ওসি নাজমুল হুদা খান বলেন, শাবিপ্রবির দুজন শিক্ষার্থীকে সিলেটে নিয়ে আসছে সিআইডি পুলিশের একটি দল। এমন খবর নিশ্চিত হওয়ার জন্য অনেকেই ফোন করে জানতে চেয়েছেন। তবে বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত নই।
সূত্র জানায়, চলমান উপাচার্যবিরোধী আন্দোলনের আন্দোলনকারীদের টাকা যোগান দেয়ার অভিযোগে সোমবার (২৪ জানুয়ারি) শাবিপ্রবির আর্কিটেকচার বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী রেজা সন্ধ্যায় উত্তরা অ্যাগোরার কাছে মুদি কেনাকাটার জন্য গিয়েছিলেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সিআইডির সাইবার ক্রাইম ইউনিট তাকে আটক করে সিআইডি সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়। অপরদিকে শাবিপ্রবির সিএসই বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমানকে সিআইডির আরেকটি দল উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টর এলাকা থেকে আটক করে। জার্মানির একটা সফটওয়্যার ফার্মে চাকরি পাওয়ায় ভিসা হয়েছে তার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন