বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

রাজনীতি

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধিতে বিপর্যস্ত জনগণের ওপর বাড়তি চাপ সৃষ্টি করবে -বাংলাদেশ মুসলিম লীগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৫:২৯ পিএম

বাংলাদেশ মুসলিম লীগ নেতৃবৃন্দ গ্যাসের মূল্য দ্বিগুণেরও বেশী বৃদ্ধির প্রস্তাবে গভীর উদ্বেগ নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, দীর্ঘ দুই বছরেরও অধিক সময় ধরে মহামারী কোভিড-১৯ এর প্রকোপে দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ কর্মজীবী মানুষ যখন অর্থনৈতিক দুরবস্থায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে এ পরিস্থিতিতে জনগণের নিত্য প্রয়োজনীয় গ্যাসের মূল্য দ্বিগুণেরও বেশী নির্ধারণ করার প্রস্তাবটি সংখ্যাগরিষ্ঠ নি¤œ ও মধ্যবিত্ত জনগোষ্ঠীর ওপর অসহনীয় বাড়তি চাপ সৃষ্টি করবে বলে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ মনে করছে। বাংলাদেশ মুসলিম লীগ পুনর্গঠনের মহানায়ক উপমহাদেশের প্রখ্যাত পার্লামেন্টারিয়ান খান এ সবুরের ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে আজ বাদ যোহর বাংলাদেশ মুসলিম লীগের উদ্যোগে দলীয় পল্টনস্থ প্রধান কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির সদস্য আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে দলীয় নেতৃবৃন্দ ওইসব কথা বলেন। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন দলীয় মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, দলীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন আবুড়ী, নজরুল ইসলাম, অতিরিক্ত মহাসচিব আকবর হোসেন পাঠান, কাজী এ.এ কাফী, খান আসাদ, শেখ এ সবুর, অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান, খোন্দকার জিয়াউদ্দিন, শেখ আবুল বাশার। নেতৃবৃন্দ মুষ্টিমেয় বেনিয়াদের স্বার্থ রক্ষার বদলে দেশের আপামর জনগণের স্বার্থ বিবেচনা করে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির অযৌক্তিক অমানবিক সিদ্ধান্ত থেকে সরকারকে সরে আসার জোর দাবী জানিয়েছেন। প্রধান বক্তার বক্তব্যে দলীয় মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের বলেন, সাধারণ মানুষকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখার অপকৌশল হিসেবে ক্ষমতাসীনরা পরিকল্পিত ভাবে বারবার বিদ্যুৎ, তেল, গ্যাস, পানির মূল্য বৃদ্ধি ঘটাচ্ছে। দীর্ঘমেয়াদী এ ঘৃণ্য পরিকল্পনার মূল উদ্দেশ্য জনগণকে জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহের খরচ যোগানেই ব্যতিব্যস্ত রাখা যাতে তাদের রাজনীতি সচেতন মনোবৃত্তি দুর্বল হয়ে যায়। গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বুমেরাং হয়ে উল্টো দেয়ালে পিঠ ঠেকা জনগণকে রাজপথে নামতে বাধ্য করবে।
সভাপতির বক্তব্যে আতিকুল ইসলাম বলেন, কোভিড-১৯ পরবর্তী অবস্থায় নতুন করে গ্যাসের মূল্য রাতারাতি দ্বিগুণেরও বেশী বৃদ্ধির প্রস্তাব কার্যত নি¤œ ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীকে নিশ্চিহ্ন করার একটি অমানবিক প্রক্রিয়া ছাড়া আর কিছু নয়। চাহিদার এক চতুর্থাংশেরও কম আমদানি নির্ভরতা এবং আমদানিকৃত এলএনজির মাত্র ছয়ের একভাগ স্পট মার্কেট থেকে কেনা হলেও কার স্বার্থে এরকম বিপর্যস্ত পরিস্থিতি সত্ত্বেও সর্বস্তরে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির চেষ্টা হচ্ছে তা জাতির বোধগম্য নয়। বিশ^বাজারে গ্যাসের মূল্য সমন্বয়ের চাইতে করোনা পরবর্তী ভয়াবহ পরিস্থিতির সাথে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রার মানের সমন্বয় করাটা অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ণ ও সরকারের অত্যাবশ্যকীয় দায়িত্ব বলে তিনি মন্তব্য করেন। সভা শেষে জননেতা মরহুম খান এ সবুরের স্মৃতিচারণ পূর্বক তার রূহের মাগফিরাত এবং দেশ ও জাতির কল্যাণের জন্য ক্বারি ওবায়েদ উল্ল্যাহর পরিচালনায় দোয়া করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন