শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

চট্টগ্রামে বিকল্প ডিআরএস

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

বিপিএলের এবারের মৌসুম শুরুর আগে থেকেই আলোচনায় ছিল ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম বা ডিআরএস না থাকা। ঢাকার প্রথম পর্বের আটটি ম্যাচ হয়েছে ডিআরএস ছাড়াই। শুরুর পর ঢাকা পর্বে আম্পায়ারের বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়ে হয়েছিল নানা সমালোচনা। যার মাশুল গুনতে হয়েছিল মিনিস্টার গ্রæপ ঢাকাকে। তাদের অভিযোগ আর আপত্তির ভিত্তিতে অবশেষে নড়েচড়ে বসেছে বিসিবি। চট্টগ্রাম পর্বে যোগ করেছে রিভিউর বিকল্প এডিআরএস (অলটারনেটিভ রিভিউ ডিসিশন সিস্টেম)। গতকাল প্রথম দিনেই এর সুফল পেয়েছে খুলনা টাইগার্স।
চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বিপিএলের দিনের মাচে স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে মুখোমুখি হয়েছিল খুলনা। এই ম্যাচেই ‘বিকল্প’ ডিআরএস’র সেই সুবিধা নিতে দেখা গেল দলটির ব্যাটার রনি তালুকদারকে। বল পায়ে লাগার অনুমানে এলবিডবøুর আবেদন করেন চট্টগ্রাম বোলার নাসুম আহমেদ। তাতে সাড়া দেন আম্পায়ার। তবে কালক্ষেপন না করেই রিভিউ নেন রনি। ভিডিও রিপ্লেতে দেখা যায় বল প্যাডে আঘাত হানার আগে ব্যাটে লেগে বাঁক নিয়েছিল। টিভি আম্পায়ারের সহায়তায় নিজের সিদ্ধান্ত পাল্টে নেন ফিল্ড আম্পায়ার। বেঁচে গেলেও দীর্ঘ হয়নি রনির ইনিংস। সেই ১৭ রানেই আউট হয়ে ফেরেন এই ব্যাটার। তবে ম্যাচটি ঠিকই জিতে নেয় তার দল। ৮ উইকেটে ১৪৪ রান তাড়া করে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে ৭ বল হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বাধীন খুলনা।
বিসিবি জানিয়েছে, প্রতি ইনিংসে দলগুলো দুটি করে অসফল ‘এডিআরএস’ ব্যবহার করতে পারবে। আম্পায়ারের কোনো এলবিডাবিøও, কট বিহাইন্ডের সিদ্ধান্তে ব্যাটসম্যানের সন্দেহ থাকলে তিনি তা থার্ড আম্পায়ারের কাছে ¯েøা অ্যাকশন রিপ্লের আবেদন করতে পারবেন। থার্ড আম্পায়ার টিভির পর্দায় একশন রিপ্লে দেখে যদি মনে করেন, আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত ভুল বা সঠিক নয়, তখন তিনি সেটি ফিল্ড আম্পায়ারকে জানাবেন। আম্পায়ার তখন সিদ্ধান্ত পালটাতে পারবেন। ২৬ জানুয়ারি এ ব্যাপারে প্রতিটি দলের অধিনায়ক, কোচ ও ম্যানেজার, বিপিএলের গভর্নিং কাউন্সিল, প্লেয়িং কন্ট্রোল টিম ও বিপিএলের প্রোডাকশন টিমের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে। এ উদ্যোগ ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো গ্রহণ করার পর টুর্নামেন্টের প্লেয়িং কন্ডিশনে এটি যোগ করা হয়েছে। ঐদিনই সব ফ্র্যাঞ্চাইজি প্রতিনিধি ও ম্যাচ কর্মকর্তাদের সঙ্গে অনলাইন সভা করেছিলেন বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান ও বিসিবির প্রধান ম্যাচ রেফারি রকিবুল হাসান। পরে বিকল্প ডিআরএস নিয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘যেহেতু আম্পায়ারিং নিয়ে কিছু বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে, আমরা চেষ্টা করছি, মনুষ্য সৃষ্ট ভুল যতটা সম্ভব কমিয়ে আনা যায়। আশা করি, এতে অন্তত পঞ্চাশ ভাগ ভুল আমরা কমিয়ে আনতে পারব।’

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন