বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত রাবি শিক্ষার্থী

রাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৫:৪৪ পিএম

প্রাইভেট মাইক্রো ও অটোরিকশার মুখোমুখি ধাক্কায় মোছাঃ আয়েশা খাতুন নামে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন। রবিবার দুপুর সাড়ে তিন টার দিকে রাজশাহীর বিহাস টু বিমানবন্দর রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত শিক্ষার্থী আয়েশা খাতুন ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। বর্তমানে তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) ভর্তি আছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অটোরিকশা করে বিহাস রোড হয়ে বাড়িতে যাচ্ছিলেন আয়শা। এ সময় সামনে থেকে দ্রুতগতির একটি প্রাইভেট মাইক্রো নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় ধাক্কা দেয়। এতে মাথায়, পায়ে ও কোমরে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হন তিনি। এসময় রিকশা চালকও গুরুতর আহত হন। ঘটনা স্থল থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয় লোকজন।

আয়েশার সহপাঠী আল-আমিন হোসাইন (বুলেট) বলেন, এই দুর্ঘটনাটি হয়েছে মূলত মাইক্রো চালকের বেপরোয়া ড্রাইভিং-এর কারণে। আমরা জানতে পেরেছি মাইক্রো চালক বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের এক শিক্ষকের ছেলে এবং সে ইন্টারে পড়ে। একটা অল্প বয়সের ছেলের কাছে মাইক্রোর চাবি দেওয়া কতটুকু যুক্তিসঙ্গত? ছেলের শখ পুরণের জন্য আরেক জনের জীবন বিপন্ন করার অধিকার তো কারও নেই। বেপরোয়া গাড়ি চালকের শাস্তি ও আহতদের ক্ষতিপূরণের দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় আমরা এটা নিয়ে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হব।

হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, দুর্ঘটনার শিকার দু'জনাই গুরুতর আহত হয়েছেন। শিক্ষার্থীর পা ভেঙ্গে গেছে ও মাথায় গভীর খত হওয়ায় ৪ টি সেলাই দেওয়া লেগেছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক তারেক নুর বলেন, গতকাল আয়েশা নামে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে। তার অবস্থা খুবই আশঙ্কা জনক। তার মাথায় গভীর খত হয়েছে। এছাড়াও তার ও রিকশা চালকের পা ভেঙ্গে গেছে। আমরা নিয়মিত তার খোঁজ খবর নিচ্ছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন