বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯, ০৯ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

জাতীয় সংবাদ

বাংলাদেশে বিরোধীদের নিপীড়ন বন্ধের আহ্বান অ্যামনেস্টির

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ১০:৪১ এএম

বাংলাদেশে বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের ওপর নিপীড়নের বিষয়ে উদ্বেগ জানিয়ে অবিলম্বে তা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে একজন নিহত ও অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হওয়ার ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় বৃহস্পতিবার সংস্থাটি এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানায়।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক ইয়ামিনি মিশ্রা ওই বিবৃতিতে বলেন, পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘাতে একজন নিহত ও অর্ধশতাধিক ব্যক্তির আহত হওয়া ঘটনা প্রমাণ করে মানুষের জীবনের প্রতি বাংলাদেশ সরকারের সম্মানবোধ নামমাত্র। এতে বোঝা যায়, বাংলাদেশ সরকার মানুষের জীবনের প্রতি খুব কমই গুরুত্ব দেয়। পাশাপাশি এই বার্তাও দেয় যে, যারা মানবাধিকার চর্চা করার সাহস দেখাবে, তারা ভয়াবহ পরিণতির মুখোমুখি হবে।

বিবৃতিতে ইয়ামিনি মিশ্রা দাবি করেন, যে কোনো পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার ক্ষেত্রে সরকারকে অতিরিক্ত শক্তি প্রয়োগ বন্ধ করতে হবে এবং আন্তর্জাতিক মানদণ্ডের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে হবে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে রাজনৈতিক কর্মীদের গণগ্রেপ্তার, হয়রানি ও ভয়ভীতি দেখানোর প্রচুর ঘটনা ঘটছে। বিষয়টি উল্লেখ করে অ্যামনেস্টির বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে আমরা কর্তৃপক্ষের দমন-পীড়ন উদ্বেগজনকভাবে বাড়তে দেখছি। কর্তৃপক্ষ রাজনৈতিক কর্মীদের গণগ্রেপ্তার চালাচ্ছে, সহিংসতা, ভীতি প্রদর্শন ও হয়রানি করছে। এসব ঘটনায় আমরা গুরুতর উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

মিশ্রা বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে প্রত্যেক নাগরিকের মানবাধিকার রক্ষার রাজনৈতিক অঙ্গীকার প্রদর্শন করতে হবে। প্রত্যেকের মানবাধিকার সমুন্নত রাখতে সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছা অপরিহার্য। মত প্রকাশ, সংগঠন ও সভাসমাবেশ করার অধিকারের নিশ্চয়তা দিতে হবে। একই সময়ে তিনি রাজনৈতিক কর্মীদের গণগ্রেপ্তার, হয়রানি ও ভয়ভীতি দেখানোর ঘটনায় জড়িতদের পুঙ্খানুপুঙ্খ ও কার্যকর তদন্ত করার আহ্বান জানান।

অ্যামনেস্টি ছাড়াও বাংলাদেশে বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের ওপর হামলা-দমন-পীড়নের খবরে উদ্বেগ জানিয়েছেন সভা-সমাবেশের অধিকারবিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ র‌্যাপোর্টিয়ার ক্লেমেন্ট ভউল। তিনি বলেছেন, তারা বাংলাদেশের ঘটনাগুলোর ওপর বিশেষ নজর রাখছেন। এর আগে ঢাকায় নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি উইন লুইস একটি বিবৃতিতে বলেন, জাতিসংঘ বাংলাদেশের সব মানুষের সমান অধিকার, মর্যাদা ও স্বাধীনতার মূল্যবোধ সমুন্নত রাখতে অতীতের মতোই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
মাজহারুল ইসলাম ধ্রুব ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ৮:১০ পিএম says : 0
ধন্যবাদ অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল মানবাধিকার সংগঠন কে। পুলিশ দিয়ে কখনো গনতান্ত্রিক দেশে জোর করে ক্ষমতা দখল করে রাখা যায় না। এটা বাংলাদেশ, এখানে বহু ইতিহাস রচিত হয়েছে, এখান থেকে অতীতে আইয়ুব খান ইয়াহিয়া খান, জুলফিকার আলি ভুট্টু, এরশাদ, সহ সকল সৈরা শাসক রা বিদায় নিয়েছে, বর্তমানেও পুলিশ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত আওয়ামী লীগের ও বিদায় হবে খুব শীগ্রই।
Total Reply(0)
Snigdha Shishir ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ৮:১০ পিএম says : 0
জাতিসংঘ, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, মানবাধিকার কমিশন, আমেরিকা এরা কোন দেশের উন্নয়ন পছন্দ করেনা। এদের কাজ হলো যে দেশ উন্নয়ন করবে ওই দেশের বিরোধী দলকে উস্কিয়ে দেওয়া।
Total Reply(0)
Foysal Miah ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ১০:৫৫ এএম says : 0
দু-পক্ষই উগ্র আচরন থামিয়ে সমযোতায় আসা উচিত। দ্রব্য উর্ধগতির কারনে সাধারন মানুষ অনেকটা ক্ষতিগ্রস্থ, এখনই দু-পক্ষ সমযোতায় না আসলে দেশের পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হবে।
Total Reply(0)
Md Salahuddin Ahmed ৯ ডিসেম্বর, ২০২২, ২:০২ পিএম says : 0
আমাকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এ কুলাউড়া থানা পুলিশ মিথ্যা মামলায় ২ নং আসামী করে মামলা রুজু করা হল আমি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড কাউন্সিল কুলাউড়া উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এর দায়িত্বে আছি এবং অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কুলাউড়া মৌলভীবাজার এ কর্মরত আছি আমি কি অপরাধ করেছি যে লোক অপরাধ করেছে তার সাথে ফোনে কথা বলেছি বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হলো টাকা ৫০ হাজার দিতে হবে নতুবা মামলা নয়তো। ঔ লোকটি আমার সাথে ভ্যাকসিন বিষয়ে কথা বলেছিল ভয়েস কল রেকর্ড শুনে ও আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানো হলো।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন