ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

গৃহবধূকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করলো সতীন রূপগঞ্জে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর লুটপাট গৃহকর্তাকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশের সময় : ৪ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে রাজি না হওয়ায় প্রতিপক্ষের লোকজন খুশি আক্তার নামে এক প্রবাসীর বাড়িতে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিবাদ করায় প্রবাসী খুশি আক্তারের স্বামী ও বাড়ির গৃহকর্তা শহিদুল্লাহ ভুইয়াকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে। শনিবার রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পর্শি বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পর্শি এলাকার শহিদুল্লাহ ভুইয়ার স্ত্রী খুশি বেগম জর্ডান প্রবাসী। শহিদুল্লাহ ভুইয়া তার মেয়ে সামিয়াকে নিয়ে পর্শি বাজার এলাকার নিজ বাড়িতে বসবাস করে আসছেন। বেশ কয়েক দিন ধরেই একই এলাকার প্রতিপক্ষ আলী কাউসারসহ তার পরিবারের লোকজন শহিদুল্লাহ ভুইয়ার বাড়ি থেকে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দাবি করেন। এতে শহিদুল্লাহ ভুইয়া বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন। অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ না দেয়াকে কেন্দ্র করে শনিবার রাত ১১টার দিকে প্রতিপক্ষ আলী কাউসার, গোলাম হোসেন, ইব্রাহীমসহ ৮-১০ জন মুখোশধারী সন্ত্রাসী শহিদুল্লাহ ভুইয়ার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। প্রতিবাদ করায় শহিদুল্লাহ ভুইয়াকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের ঘটনা আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এদিকে, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সতীনসহ প্রতিপক্ষের লোকজন শিল্পী বেগম (৩৮) নামে এক গৃহবধূকে বটি দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার সকালে উপজেলার রুপসী এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। আহত গৃহবধূ শিল্পী বেগম রূপসী এলাকার মৃত কালু ভুইয়ার মেয়ে। গৃহবধূ শিল্পী বেগম জানান, গত ১৮ বছর আগে রূপসী এলাকার মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়ার সঙ্গে শিল্পী বেগমের ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক বছর পর শারিরিক অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সুযোগে স্বামী জাহাঙ্গীর মিয়া পূর্বগ্রাম এলাকার শাহনাজ বেগম নামে আরেক মহিলাকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দ্বিতীয় বিয়ের পর থেকেই সতীন শাহনাজসহ সতীনের পক্ষের লোকজন বিভিন্নভাবে শিল্পী বেগমকে জ্বালা-যন্ত্রণা ও মারধর করে আসছে। এসব কারণে শিল্পী বেগম তার বাপের বাড়িতে চলে যায়। বাপের বাড়িতে থাকলেও জাহাঙ্গীর মিয়া প্রথম স্ত্রী শিল্পীর খরচ চালিয়ে আসছে। গত শনিবার সকালে চিকিৎসার খরচ আনতে স্বামীর বাড়িতে যায়। এসময় স্বামী জাহাঙ্গীর বাড়িতে না থাকার সুযোগে সতীন শাহনাজ বটি দিয়ে কুপিয়ে শিল্পী বেগমকে আহত করে। এক পর্যায়ে সতীনের পক্ষ হয়ে রফিকুল, শফিকুল ও ওবাইদুল হাতে ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে শিল্পী বেগমকে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থল পুলিশ পাঠিয়ে তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন